ঢাকা, শনিবার   ২৩ নভেম্বর ২০১৯,   অগ্রাহায়ণ ৮ ১৪২৬

ব্রেকিং:
মুন্সিগঞ্জে বাস-বরযাত্রীবাহী মাইক্রোবাসের সংঘর্ষে তিন শিশুসহ নিহত ১০,ছয় সদ্যসের তদন্ত কমিটি গঠন
সর্বশেষ:
৫৫ বছরই থাকছে যুবলীগে বয়সসীমা এমপি বুবলীকে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত বাংলাদেশ ১০৬ রানে অল আউট বিএনপির অপপ্রচারের ওপর আমাদের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেইঃ কাদের জানুয়ারির মাঝামাঝি ঢাকার দুই সিটি নির্বাচন

অর্থনীতিতে নোবেল পেলেন স্বামী-স্ত্রী

প্রকাশিত: ১৪ অক্টোবর ২০১৯  

পঠিত: ১৪৭
ছবি - সংগৃহীত

ছবি - সংগৃহীত

ভারতীয় অর্থনীতিবিদ নোবেলজয়ী অমর্ত্য সেনের ছাত্র ছিলেন অভিজিৎ। অর্থনীতিতে অমর্ত্য সেনের পর দ্বিতীয় বাঙালি হিসেবে নোবেল পেলেন তিনি।বৈশ্বিক দারিদ্র্য লাঘবে অবদান রাখায় এ বছর অর্থনীতিতে নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন বাঙালি অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বিনায়ক ব্যানার্জি। তবে তিনি একা নন, অভিজিতের সঙ্গেই নোবেল জিতেছেন তার স্ত্রী এস্তার দুফলো। এই দম্পতির সঙ্গে মার্কিন অর্থনীতিবিদ মাইকেল ক্রেমার এর নামও যুক্ত হয়েছে।

অন্যদিকে অভিজিতের স্ত্রী ফরাসী ও মার্কিন নাগরিক এস্তার দুফলো হলেন গত ৫০ বছরে দ্বিতীয় নারী যিনি অর্থনীতিতে নোবেল পেলেন। তবে অর্থনীতিতে নোবেল জয়ীদের মধ্যে দুফলোই সর্বকনিষ্ঠ। তিনি প্যারিসে ইতিহাস ও অর্থনীতিতে পড়াশোনা করেছেন। খবর বিবিসি'র

অভিজিতের জন্ম ভারতের মহারাষ্ট্রের মুম্বাইতে। তবে কলকাতার বিভিন্ন গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়, ১৯৬১ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায় অভিজিতের জন্ম হয়।

অভিজিৎ ব্যানার্জির মা নির্মলা ব্যানার্জিও কলকাতার সেন্টার ফর স্টাডিজ ইন সোশ্যাল সায়েন্সেসের অর্থনীতি বিভাগের একজন অধ্যাপক ছিলেন।

অভিজিৎ ব্যানার্জি ১৯৮১ সালে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিএসসি ডিগ্রি অর্জনের পর ১৯৮৩ সালে জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমএ ডিগ্রি লাভ করেন। পরে ১৯৮৮ সালে পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে।

অভিজিৎ এখন কাজ করছেন ম্যাসাচুসেটস ইন্সটিটিউট অব টেকনোলজিতে, যা এমআইটি নামে বিশ্বে বহুলভাবে পরিচিত। সেখানে তিনি ফোর্ড ফাউন্ডেশন ইন্টারন্যাশনাল প্রফেসর হিসেবে অর্থনীতি পড়ান। অভিজিতের স্ত্রী এস্তার দুফলোও এমআইটিতে কাজ করেন।

এই বিভাগের আরো খবর