Berger Paint

ঢাকা, রোববার   ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০,   আশ্বিন ১২ ১৪২৭

ব্রেকিং:
টিকেট দেড়শ’, অপেক্ষায় কয়েক হাজার সৌদি যাত্রী! প্রধানমন্ত্রী পদে আর প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন না মাহাথির ভূমধ্যসাগরে উদ্ধার হওয়া ২২ জনের ৮ জন বাংলাদেশি পাকিস্তানে যাত্রীবাহী বাসে আগুন, নিহত ১৩ করোনায় মারা গেলেন চবির সাবেক উপাচার্য নূরুদ্দীন চৌধুরী
সর্বশেষ:
৫ অক্টোবর ঢাকায় আসছেন ভারতের নতুন হাইকমিশনার বিক্রম দোরাইস্বামী পার্বতীপুরে নিজ ঘরে ঘুমন্ত অবস্থায় দেয়ালচাপায় ২ সন্তানসহ স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার অবনতি, খেতে-হাঁটতে পারছেন না: ব্যারিস্টার খোকন যুক্তরাষ্ট্রে আগাম ভোটে আগ্রহ বেড়েছে ৮৭ শতাংশ মানুষের

আজ বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ শেখের জন্মদিন

প্রতিদিনের চিত্র ডেস্ক

প্রকাশিত: ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

পঠিত: ২০৩
ছবি - সংগৃহীত

ছবি - সংগৃহীত

আজ বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ শেখের  জন্মদিন। ১৯৩৬ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি নূর মোহাম্মদ শেখ নড়াইল সদর উপজেলার চন্ডীবরপুর ইউনিয়নের মহিষখোলা (বর্তমান নাম নূর মোহাম্মদনগর ) গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।তার পিতা মোহাম্মদ আমানত শেখ, মাতা জেন্নাতুন্নেসা।
 
১৯৫৯ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি তিনি তৎকালীন ইপিআর-এ (পূর্ব পাকিস্তান রাইফেলেস্) যোগদান করেন। দীর্ঘদিন দিনাজপুর সীমান্তে চাকরি করে ১৯৭০ সালের ১০ জুলাই যশোর সেক্টরে বদলি হন এবং ল্যান্স নায়েক পদে পদোন্নতি পান তিনি। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে তিনি যশোর অঞ্চল নিয়ে গঠিত ৮নং সেক্টরে অংশ নেন।

একাত্তরের ৫ সেপ্টেম্বর নূর মোহাম্মদ যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার গোয়ালহাটি গ্রামের সম্মুখ যুদ্ধে একটি টহলের নেতৃত্ব দিচ্ছেলেন। সঙ্গী ছিল আরো ৪ জন সৈন্য। তারা পার্শ্ববর্তী ছুটিপুর পাক হানাদার বাহিনীর ঘাঁটির ওপর নজর রাখছিলেন। পাকবাহিনী টের পেয়ে বিপদজনক অবস্থার মুখে টহলদারী মুক্তিযোদ্ধাদের ফাঁদে ফেলার পরিকল্পনা করে। হানাদারদের এই পরিকল্পনা বুঝে উঠতেই নূর মোহাম্মদ সঙ্গীদের নিয়ে হানাদার বাহিনীর ঘাঁটি আক্রমণ করেন। শুরু হয় সম্মূখ যুদ্ধ। মারাত্মক আহত হন সঙ্গী নান্নু মিয়া। তাকে বাঁচাতে এগিয়ে আসলে হানাদারদের মর্টার শেল মারাত্মকভাবে জখম করে নূর মোহাম্মাদকে।

মৃত্যু আসন্ন বুঝে তিনি সিপাহী মোস্তফা কামালের হাতে নেতৃত্ব তুলে দিয়ে আহত নান্নু মিয়াকে নিয়ে সবাইকে নিরাপদ স্থানে চলে যেতে বলেন। উপায়োন্তর না পেয়ে তারাও তাই করলেন, কিন্তু একটি এসএলআর রেখে যান আহত কমান্ডারের কাছে। নূর মোহাম্মাদ মৃত্যুপথযাত্রী হয়েও এসএলআর নিয়ে শেষবারের মত ঝাঁপিয়ে পড়েন হানাদারদের ওপর সেখানেই তিনি শহীদ হন। পরবর্তীতে নিকটবর্তী একটি ঝোঁপের মধ্যে এই বীরের মৃতদেহ পাওয়া যায়।

অল্প বয়সে বাবা-মাকে হারিয়ে ডানপিটে হয়ে পড়েন নূর মোহাম্মদ। স্থানীয় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের লেখাপড়া শেষ করে উচ্চ বিদ্যালয়ে ভর্তি হন। সপ্তম শ্রেণীর পর আর পড়াশোনা করেননি। কৈশোরে তিনি নাটক থিয়েটার ইত্যাদি খুব পছন্দ করতেন। ১৯৫২ সালে নিজ গ্রামেরই কৃষক ঘরের মেয়ে তোতাল বিবিকে বিয়ে করেন। তখন তার বয়স মাত্র ১৬ বছর এবং স্ত্রী তোতাল বিবির বয়স মাত্র ১২ বছর। তিনি দুই সন্তানের বাবা ছিলেন।

এই বিভাগের আরো খবর