ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৬ মে ২০২২,   জ্যৈষ্ঠ ১২ ১৪২৯

ব্রেকিং:
চট্টগ্রাম, গাজীপুর, কক্সবাজার, নারায়ানগঞ্জ, পাবনা, টাঙ্গাইল ও ময়মনসিংহ ব্যুরো / জেলা প্রতিনিধি`র জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের আবেদন পাঠানোর আহ্বান করা হচ্ছে। শিক্ষাগত যোগ্যতা- স্নাতক, অভিজ্ঞদের ক্ষেত্রে শিক্ষাগত যোগ্যতা শিথিল যোগ্য। দৈনিক প্রতিদিনের চিত্র পত্রিকার `প্রিন্ট এবং অনলাইন পোর্টাল`-এ প্রতিনিধি নিয়োগ পেতে অথবা `যেকোন বিষয়ে` আর্থিক লেনদেন না করার জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের এবং প্রতিনিধিদের অনুরোধ করা হল।
সর্বশেষ:
ডাক্তারদের ফাঁকিবাজি রুখতে হাজিরা খাতায় দিনে তিনবার সই করার নির্দেশ! ১০০০ জনবল নিয়োগ দেবে ওয়ালটন ঢাকায় আসছে ফিফা বিশ্বকাপ ট্রফি সরকারকে ৬ দিনের আল্টিমেটাম ইমরান খানের ফাইনালের পথে বেঙ্গালুরু, লখনৌর বিদায় সেনেগালে হাসপাতালে আগুন; ১১ নবজাতকের মৃত্যু বিশ্বব্যাপী মাঙ্কিপক্স আক্রান্ত ২০০ ছাড়িয়েছে ঢাবিতে ফের ছাত্রলীগ-ছাত্রদল সংঘর্ষ

‘আকাশ নীলর’

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থপনা পরিচালক ও পরিচালক গ্রেফতার

প্রকাশিত: ২১ মার্চ ২০২২  

 

অস্বাভাবিক লোভনীয় অফার দিয়ে সাধারণ গ্রাহকদের প্রায় ৮ কোটি টাকা আত্মসাৎ করে লাপাত্তা হওয়া ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ‘আকাশ নীল’ এর ব্যবস্থপনা পরিচালক- মশিউর রহমান ও পরিচালক- ইফতেখারুজ্জামান রনিকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

 

গতকাল রোববার (২০ মার্চ) সারাদিন অভিযান চালিয়ে রাজধানী ঢাকা-ফরিদপুর এলাকায় পৃথক অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

 

র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের সহকারী পরিচালক এএসপি আ ন ম ইমরান খান জানান, কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎকারী ‘আকাশ নীল’ প্রতারণার মূলহোতা ব্যবস্থপনা পরিচালক ও প্রতিষ্ঠানের পরিচালককে গ্রেফতার করা হয়।

 

ঘটনাসূত্রে জানাগেছে, গত শনিবার (১৯ মার্চ) আকাশ নীলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, চেয়ারম্যানসহ সাতজনকে আসামি করে রাজধানীর শেরেবাংলা নগর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। মামলায় টাকা নিয়ে পণ্য না দেওয়া ও হুমকি প্রদানের অভিযোগ আনেন ভুক্তভোগী রুহুল আমিন নামে একজন।

 

দায়েরকৃত মামলার আসামিরা হলেন- আকাশ নীলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মশিউর রহমান, পরিচালক ইফতেখার উজ জামান, এজেন্ট রাকিবুল হাসান, এজেন্ট সৈয়দ রুমান, চেয়ারম্যান খাদিজা বেগম ও মশিউর রহমানের দুই স্ত্রী ব্যবসায়িক অংশীদার ফাতেমা আক্তার ও মৌসুমী আক্তার।

 

মামলার অভিযোগ অনুযায়ী, ফেসবুকে ২০২১ সালের আগস্টে ২৫ দিনের মধ্যে মোটরসাইকেল সরবরাহ করার অফার দেয় আকাশ নীল প্রতিষ্ঠানটি। এমন বিজ্ঞাপন দেখে তিনি ছয়টি মোটরসাইকেল কেনার জন্য প্রতিষ্ঠানটিকে ১ কোটি ৯৫ লাখ ৫২ হাজার ৫০০ টাকা দেন। নির্ধারিত সময়ে মোটরসাইকেল না পেয়ে প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। কিন্তু মোটরসাইকেল না দিয়ে তাকে একটি চেক ধরিয়ে দেয় প্রতিষ্ঠানটি। পরে চেক প্রত্যাখ্যাত হয়। এতে পাওনা অর্থ ফেরত চাইলে প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তারা তাকে হুমকি দেন।

 

সূত্র বলেছে, এছাড়াও আরো ৩০ যুবকের কাছ থেকে ৬ কোটি ৪ লাখ ৫৩ হাজার ৪০০ টাকা আত্মসাৎ করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

এই বিভাগের আরো খবর