Berger Paint

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০৪ জুন ২০২০,   জ্যৈষ্ঠ ২০ ১৪২৭

ব্রেকিং:
করোনায় পেরুতে ২০ সাংবাদিকের মৃত্যু সিলেটের মেয়র আরিফুলের স্ত্রী করোনায় আক্রান্ত বিশ্বে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত ১ লাখ ১৬ হাজার, মৃত্যু ৪৬৬৯
সর্বশেষ:
করোনায় মারা গেলেন এনবিআর কর্মকর্তা জসীম উদ্দিন বগুড়ায় পুলিশ-আইনজীবীসহ ৫৭ জনের করোনা শনাক্ত সিলেটে ২ চিকিৎসকসহ আরও ৬৫ জনের করোনা পজিটিভ

এস আলম গ্রুপ আনছে ৫০ হাজার টন পেঁয়াজ

প্রকাশিত: ১ নভেম্বর ২০১৯  

পঠিত: ১৪২
ছবি - সংগৃহীত

ছবি - সংগৃহীত

দেশে চলমান পেঁয়াজের সংকট কাটাতে ৫০ হাজার টন পেঁয়াজ আমদানীর উদ্যোগ নিয়েছে দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্প প্রতিষ্ঠান এস.আলম গ্রুপ। আগামী সপ্তাহে মিসর থেকে এর প্রথম চালান চট্টগ্রাম বন্দরে পৌঁছানোর কথা রয়েছে বলে জানা যায়।

জানা যায়, খুচরা বাজারে প্রতিকেজি পেঁয়াজ বিক্রী হচ্ছে ১২০টাকা থেকে ১৩০ টাকায়। এ অবস্থায় বাজার স্থিতিশীল রাখতে আমাদানী করা এসব পেঁয়াজ বাজরে ৬০টাকায় বিক্রী করা যাবে বলেও জানান আমাদানীকারকরা।

ভারতের বৈদেশিক বাণিজ্যবিষয়ক দপ্তর গত ২৯ সেপ্টেম্বর পেঁয়াজ রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা দেয়। নিজেদের বাজার সামাল দিতে এই পদক্ষেপ নেয় দেশটি। এরপরই বাংলাদেশসহ এশিয়া ও মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোয় পেঁয়াজের বাজারে অস্থিরতা দেখা দেয়।

চট্টগ্রামের পাইকারী ব্যবসা কেন্দ্র খাতুনগঞ্জ ঘুরে দেখা গেছে অধিকাংশ আড়ত আর পাইকারী ব্যবসা কেন্দ্র খালি পড়ে আছে। হাতে গোনা কয়েকটি মোকামে পেঁয়াজ থাকলেও সেসব পেঁয়াজ পাইকারি বাজারে বিক্রি হচ্ছে ১০৫ টাকা থেকে ১১০ টাকায়। আর খুচরা বাজারে বিক্রী হচ্ছে ১২০টাকা থেকে ১৩০টাকায়।

এস আলম গ্রুপের বাণিজ্যিক বিভাগের প্রধান মহাব্যবস্থাপক আখতার হাসান বলেন, ‘সাধারণ মানুষ যাতে সহনীয় দামে পেঁয়াজ কিনতে পারে সে জন্য পেঁয়াজ আনা হচ্ছে। এখানে ব্যবসার কোনো উদ্দেশ্য নেই। আগামী সপ্তাহে পেঁয়াজের বড় চালানটি আসছে। এই চালান আসার পর দেশে পেঁয়াজের সংকট থাকবে না। দামও কমে আসবে।’

এই বিভাগের আরো খবর