Berger Paint

ঢাকা, শুক্রবার   ২৭ নভেম্বর ২০২০,   অগ্রাহায়ণ ১২ ১৪২৭

ব্রেকিং:
ম্যারাডোনার মৃত্যুতে আর্জেন্টিনায় ৩ দিনের রাষ্ট্রীয় শোক ম্যারাডোনার হার্ট অ্যাটাকে মৃত্যু
সর্বশেষ:
এবার কারাবাখের কালবাজার নিয়ন্ত্রণ নিল আজারবাইজান করোনায় আক্রান্ত বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন

ক্যান্সারে আক্রান্ত পুতিন, নতুন বছরে ছাড়ছেন ক্ষমতা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ২১ নভেম্বর ২০২০  

পঠিত: ১৬৯
রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন, ছবি- সংগৃহীত।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন, ছবি- সংগৃহীত।

 

ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। পারকিনসন রোগের লক্ষণও দেখা দিয়েছে তার। গত ফেব্রুয়ারিতে তার একবার জরুরি অপারেশনও করা হয়েছে। আগামী বছরের শুরুতে ক্রেমলিন ছাড়ার পরিকল্পনা করছেন পুতিন।

 

প্রেসিডেন্ট পুতিনের বয়স এখন ৬৮ বছর। এ বয়সে তার দু’রকম স্বাস্থ্য বিষয়ক সমস্যা দেখা দিয়েছে। একটি হলো, সাইকো-নিউরোলজিক্যাল প্রকৃতির অর্থাৎ পারকিনসন। অন্যটি হলো ক্যান্সার।

 

রাশিয়ার রাজনৈতিক বিশ্লেষক ভ্যালেরি সলোভেই বলেছেন, দ্বিতীয় ডায়াগনোসিস বা রোগের পরীক্ষা প্রথম পরীক্ষার চেয়ে অনেক বেশি বিপজ্জনক। কারণ, প্রথম ডায়াগনোসিসে তার পারকিনসন ধরা পড়েছে। তবে শারীরিক অবস্থার জন্য ততোটা ভয়াবহ নয়। এর ফলে একজন মানুষের জনসমক্ষে আসা সীমিত হতে পারে। কিন্ত কু ভয়াবহ রোগ ধরা হয়েছে তার। তার মতে সেটা হলো ক্যান্সার। ফেব্রুয়ারিতে পুতিনের অপারেশন করানো হয়েছে। কি সমস্যায় অপারেশন করানো হয়েছে তা তিনি বলেননি।

 

ভ্যালেরি সলোভেই হলেন রাশিয়ান রাষ্ট্রবিজ্ঞানী। ইতিহাসবিদ এবং পাবলিক রিলেশন্স ডিপার্টমেন্ট মস্কো স্টেট ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল রিলেশনের সাবেক প্রধান। এ ছাড়া তিনি রাশিয়ার অভিজাত বিশ্ববিদ্যালয়ের সবচেয়ে অভিজাতদের একজন। গত বছর তিনি পদ ছেড়েছেন। বলেছেন, রাজনৈতিক কারণে তিনি এ সিদ্ধান্ত নিযেছেন। গত বছর সেপ্টেম্বরে মস্কোতে সরকার বিরোধী এক বিক্ষোভ হয়। তাতে অংশ নেয় বিরোধী দলের একজন সদস্য সের্গেই ফারগাল এবং তখনকার খাবারোভস্ক ক্রাই অঞ্চলের গভর্নর। ওই বিক্ষোভে অংশ নিয়েছিলেন ভ্যালেরি সলোভেই।

 

পুতিন যদি নতুন বছরেই ক্ষমতা থেকে সরে যান তাহলে কে হবেন তার উত্তরসূরি। এ প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন ভ্যালেরি সলোভেই। তিনি বলেছেন, এ জন্য আগে থেকেই মেয়ে ক্যাটেরিনা টিকোনোভা’কে (৩৪) গড়ে তুলছেন পুতিন। রাশিয়ার সাবেক হাই-কিকিং ড্যান্সার ক্যাটেরিনা টিকোনোভা। বর্তমানে নতুন একটি কৃত্রিম গোয়েন্দা পদক্ষেপে সামনে থেকে কাজ করছেন।

 

প্রেসিডেন্ট পুতিনের সাম্প্রতিক ফুটেজ নিয়ে পর্যালোচনা বা গবেষণা করেছেন যেসব পর্যবেক্ষক তারা বলেছেন, তার পা অব্যাহতভাবে কাঁপতে দেখা গেছে। তিনি একটি আর্মচেয়ারে বসে যখন বিশ্রাম নিচ্ছিলেন, তখন তিনি খুব ব্যথা বোধ করছেন বলে মনে হয়েছে। তিনি যখন কলম ধরছিলেন, তখন আঙ্গুল কাঁপতে দেখা গেছে। এ সময় তিনি একটি কাপ হাতে নেন। ধারণা করা হয় তাতে বেদনানাশক ককটেল ছিল।

 

ভ্যালেরি সলোভেই বলেছেন, পুতিনের অঘোষিত পার্টনার অ্যালিনা কাবায়েভা, তার মেয়ে মারিয়া ভোরোনস্টোভা (৩৫) ও ক্যাটেরিনা টিকোনোভাও তাকে ক্ষমতা থেকে সরে যাওয়ার জন্য চাপ দিচ্ছেন। তাই তিনি যে পরিবারে আছেন সেখানকার বড় একটি প্রভাব পড়বে তার ওপর। ফলে তিনি আগামী জানুয়ারিতে ক্ষমতা হস্তান্তরের পরিকল্পনা করে থাকতে পারেন। তিনি আরো বলেন, এমনটা করার আগে পুতিন দ্রুততার সঙ্গে একজন নতুন প্রধানমন্ত্রী নিয়োগ দিতে পারেন, যাকে তিনি নিজের মতো করে উত্তরসূরি হিসেবে গড়ে তুলতে পারেন।

 

আরো পড়ুন: যুক্তরাষ্ট্রের হাসপাতালে বেবী নাজনীন

 

মুখপাত্র দমিত্রি পেসকভ বলেছেন, বিশ্বের অনেক দেশেই এই প্রক্রিয়া চালু আছে। তবে আন্তর্জাতিক চর্চার অংশ হিসেবে এটা করা হয়নি। পুতিনের পারকিনসন রোগ আছে, এ দাবি জোর দিয়ে অস্বীকার করেছে ক্রেমলিন। মুখপাত্র দমিত্রি পেসকভ বলেছেন, প্রেসিডেন্ট পুতিন চমৎকার সুস্থ আছেন।

 

 

 

 

 

এই বিভাগের আরো খবর