ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৬ মে ২০২২,   জ্যৈষ্ঠ ১২ ১৪২৯

ব্রেকিং:
চট্টগ্রাম, গাজীপুর, কক্সবাজার, নারায়ানগঞ্জ, পাবনা, টাঙ্গাইল ও ময়মনসিংহ ব্যুরো / জেলা প্রতিনিধি`র জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের আবেদন পাঠানোর আহ্বান করা হচ্ছে। শিক্ষাগত যোগ্যতা- স্নাতক, অভিজ্ঞদের ক্ষেত্রে শিক্ষাগত যোগ্যতা শিথিল যোগ্য। দৈনিক প্রতিদিনের চিত্র পত্রিকার `প্রিন্ট এবং অনলাইন পোর্টাল`-এ প্রতিনিধি নিয়োগ পেতে অথবা `যেকোন বিষয়ে` আর্থিক লেনদেন না করার জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের এবং প্রতিনিধিদের অনুরোধ করা হল।
সর্বশেষ:
রাজধানীতে বাসা থেকে দুই যুবকের মরদেহ উদ্ধার প্রেমিকাকে ভিডিও কলে রেখে কলেজছাত্রের আত্মহত্যা বাইডেন যেতেই একসঙ্গে ৩ ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ল উত্তর কোরিয়া টেক্সাসে স্কুলে গুলি: বাইডেনের ক্ষোভ, পতাকা অর্ধনমিত রাখার ঘোষণা গুলি করে খুন করা হয়েছে অভিনেত্রী পল্লবীকে! জার্মানিতেও ছড়িয়ে পড়ছে মাঙ্কিপক্স মেক্সিকোতে বন্দুকধারীদের হামলায় নিহত ১১

খাগড়াছড়িতে স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

দহেন বিকাশ ত্রিপুরা, খাগড়াছড়ি

প্রকাশিত: ৯ অক্টোবর ২০২০  

ছবি- প্রতিদিনের চিত্র

ছবি- প্রতিদিনের চিত্র



খাগড়াছড়িতে স্ত্রী মোছা. জান্নাত বেগমকে গলায় ‘ওড়না পেঁচিয়ে’ হত্যার দায়ে তাঁর স্বামী মো. মোখলেছ মিয়াকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাঁকে ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (০৮অক্টোবর ২০২০খ্রিঃ) দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ রেজা মোহাম্মদ আলমগীর হাসান এই রায় ঘোষণা করেন। ৯ জনের সাক্ষী প্রমাণের ভিত্তিতে আদালত এই মৃত্যুদণ্ডের রায় ঘোষণা করেছেন বলে জানান আদালতের সরকারি কৌঁসুলি বিধান কানুনগো। রায় ঘোষণার সময় আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

 

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৪ সালে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত মো. মোখলেছ মিয়ার সঙ্গে গুইমারা উপজেলার বড়পিলাক এলাকায় বসবাসকারী মোছা. জান্নাত বেগমের সঙ্গে বিয়ে হয়। তাদের বিয়ের পর থেকেই ’যৌতুক’সহ বিভিন্ন কারণে তাদের মধ্যে সবসময় ঝগড়াবিবাদ লেগেই থাকত। এসবের জের ধরেই ২০১৭ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর সকাল আনুমানিক ৮টার দিকে মোখলেছ তাঁর স্ত্রী জান্নাতের গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস দিয়ে হত্যা করেন। এ হত্যাকান্ডের ঘটনায় জান্নাতের বাবা ফারুক বাদী হয়ে একটি ‘হত্যা মামলা’ করেন।

 

এদিকে রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করে জান্নাত বেগমের বাবা মো. ফারুক বলেন, এই রায় ’উচ্চ আদালতে’ও যেন বহাল থাকে এবং ’দ্রুত কার্যকর’ হয়, সেই দাবি জানাচ্ছি।

এই বিভাগের আরো খবর