ঢাকা, শনিবার   ২৫ জুন ২০২২,   আষাঢ় ১১ ১৪২৯

ব্রেকিং:
চট্টগ্রাম, গাজীপুর, কক্সবাজার, নারায়ানগঞ্জ, পাবনা, টাঙ্গাইল ও ময়মনসিংহ ব্যুরো / জেলা প্রতিনিধি`র জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের আবেদন পাঠানোর আহ্বান করা হচ্ছে। শিক্ষাগত যোগ্যতা- স্নাতক, অভিজ্ঞদের ক্ষেত্রে শিক্ষাগত যোগ্যতা শিথিল যোগ্য। দৈনিক প্রতিদিনের চিত্র পত্রিকার `প্রিন্ট এবং অনলাইন পোর্টাল`-এ প্রতিনিধি নিয়োগ পেতে অথবা `যেকোন বিষয়ে` আর্থিক লেনদেন না করার জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের এবং প্রতিনিধিদের অনুরোধ করা হল।
পদ্মায় স্বপ্নপূরণের ক্ষণগণনা
১৮দিন
:
১৯ঘণ্টা
:
০৬মিনিট
:
১০সেকেন্ড
সর্বশেষ:
সবাইকে কৃতজ্ঞতা জানালেন প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতুর মধ্য দিয়ে দেশ নতুন যুগে প্রবেশ করেছে: শিক্ষামন্ত্রী মাথা নোয়াইনি, কখনো নোয়াবো না: প্রধানমন্ত্রী জনসভাস্থলে লাখো মানুষের ঢল দেশে বন্যায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৭৩ পদ্মা সেতুতে টোল দিলেন প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধন করা হলো স্বপ্নের পদ্মা সেতুর কারো বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ নেই, বললেন প্রধানমন্ত্রী

খালেদা জিয়ার হার্টে আরও রিং বসানোর শারীরিক অবস্থা নেই: ডা. মামুন

প্রতিদিনের চিত্র বিডি ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৪ জুন ২০২২  

ছবি- সংগৃহীত।

ছবি- সংগৃহীত।

 

বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার হার্টে বাকি দুটি ব্লকে রিং পরানোর মতো শারীরিক অবস্থা নেই। আজ মঙ্গলবার বেগম জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসক মোহাম্মদ মামুন সকালে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।

 

‘এখনো বেগম খালেদা জিয়ার পরিস্থিতি স্থিতিশীল হয়নি’ উল্লেখ করে ডা. মামুন জানান, বেগম জিয়া প্রতিদিনের অবস্থা পর্যবেক্ষণ সাপেক্ষে তাঁকে কেবিনে স্থানান্তর করা হবে কি না, সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

 

ডা. মামুন বলেন, ‘একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হবে। এই বোর্ড বিকেলে বৈঠক করবে। সেখানেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে, পরবর্তীতে কী করা হবে।’

 

এদিকে ‘সরকার চাইলেই বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠাতে পারে। এক্ষেত্রে আইন কোনো বাধা নয়’ বলে দাবি করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান। খালেদা জিয়া গুরুতর অসুস্থ উল্লেখ করে তাকে জরুরি ভিত্তিতে সুচিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠাতে সরকারের প্রতি আহ্বানও জানান তিনি।

 

হৃদযন্ত্রের সমস্যা নিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে গত শুক্রবার রাত ৩টা ২০ মিনিটে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালের করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) ভর্তি করা হয়। পরদিন শনিবার সকালে তাঁর চিকিৎসায় গঠিত মেডিকেল বোর্ড বৈঠক করে জরুরিভিত্তিতে এনজিওগ্রাম করার সিদ্ধান্ত নেয়। পরে দুপুরে অধ্যাপক ডা. শাহাবুদ্দিন তালুকদারের তত্ত্বাবধানে এনজিওগ্রাম করা হলে ব্লক ধরা পড়ায় সেখানে রিং বসানো হয়। এরপর আরও দুটি ব্লক ধরা পড়ে তাঁর।

 

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার হার্ট অ্যাটাকের পর বর্তমানে মেডিকেল বোর্ডের পরামর্শ অনুযায়ী তাঁকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

 

এই বিভাগের আরো খবর