Berger Paint

ঢাকা, শনিবার   ২৮ মার্চ ২০২০,   চৈত্র ১৪ ১৪২৬

ব্রেকিং:
দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ৪৮ জনের মধ্যে ১৫ জন সুস্থ হয়েছেন। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে কেউ আক্রান্ত হননি।
Corona Virus Hotline
সর্বশেষ:
পদ্মাসেতুতে বসলো ২৭তম স্প্যান রোববার থেকে টিভিতে মাধ্যমিকের ক্লাস শুরু ইতালিতে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৯১৯ জনের মৃত্যু করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে প্রায় ছয় লাখে দাঁড়িয়েছে করোনা ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ২৭ হাজার ৩৪৩ জন যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় ৪০০ জনের প্রাণহানি টাঙ্গাইলে ট্রাক উল্টে নিহত ৫

চালসহ নিত্যপণ্যের দাম বাড়ালে কঠোর ব্যবস্থা : ইউএনও শাহজাদপুর

ফারুক হাসান কাহার, শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ)

প্রকাশিত: ২৪ মার্চ ২০২০  

পঠিত: ১২৬৩
ছবি- প্রতিদিনের চিত্র

ছবি- প্রতিদিনের চিত্র

করোনা ভাইরাস আতঙ্কে সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরের হাট বাজারে হঠাৎ করেই বেড়ে গেছে নিত্যপণ্যের দাম। চাল, ডাল, তেল, পেঁয়াজসহ শাকসবজিও বিক্রি হচ্ছে চড়া দামে। উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলেও অজানা আশংকায় নিত্যপণ্যের বাজারে হঠাৎ করেই ক্রেতারা ভিড় জমাচ্ছে। তবে করোনা ভাইরাস আতংকে বাজারে কেউ চালসহ নিত্যপণ্যের দাম বাড়ালে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ মোঃ শামসুজ্জোহা।

পৌর সদরের দ্বারিয়াপুর বাজার সহ কয়েকটি ইউনিয়নের বাজার ঘুরে দেখা গেছে, নিত্যপণ্যের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে মূল্য তালিকা ঝুলিয়ে দেয়ার নির্দেশ থাকলেও অধিকাংশ প্রতিষ্ঠানে টানানো নেই মূল্য তালিকা। কিছুদিন আগেও সরকারের প্রত্যক্ষ নজরদারিতে চালসহ নিত্যপণ্যের দাম ক্রয়সীমায় নেমে আসে। এখন করোনা আতংকে মান অনুযায়ি চালের দাম বস্তা প্রতি বেড়েছে ১৫০ থেকে ২০০ টাকা। এছাড়া প্রতি লিটার তেলে খুচরা ব্যবসায়িরা দাম বাড়িয়েছে ৪ থেকে ৫ টাকা। সেইসাথে বেড়েছে শাকসবজির দামও।

শাহজাদপুর বাজারের চাল ব্যবসায়ী চন্দন দাস বলেন, চালের কোন ঘাটতি নেই কিন্তু করোনা আতংকে ঘর থেকে বের হতে পারবে না এই ভয়ে লোকজন চাল মজুত করতে শুরু করেছে তাই চালের দাম বাড়তির দিকে। মোকামেও চালের দাম বাড়িয়ে দিয়েছে।

গত কয়েকদিনে প্রতি কেজি পেঁয়াজে দাম বেড়েছে ১৫ থেকে ২০ টাকা ও আলুর দাম বেড়েছে ৫ টাকা, পেপে কেজি প্রতি ৫ টাকা। খুচরা বিক্রেতাদের অভিযোগ, চাহিদার তুলনায় পণ্যের চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় পাইকারি ব্যবসায়িরা দাম বাড়িয়ে দিয়েছে। ফলে তাদেরও বেশি দামে বিক্রি করতে হচ্ছে।

বাজারের বেশ কয়েকজন ক্রেতার সাথে কথা বললে তারা অভিযোগ করে বলেন, করোনা ভাইরাস আতংকে পুঁজি করে এক শ্রেণির ব্যবসায়ি চালসহ নিত্যপণ্যের দাম রাতারাতি বাড়িয়ে দিয়েছে। চড়া দামের কারণে সীমিত আয়ের মানুষেরা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছে। এ ব্যাপারে প্রশাসনকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার অনুরোধ করেছেন তারা।

শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ মোঃ শামসুজ্জোহা জানান, কোন ব্যবসায়ি যাতে বেশি দামে নিত্যপণ্য বিক্রি করতে না পারে সে ব্যাপারে বাজার নিয়মিত মনিটরিং করা হচ্ছে । বাজার নিয়ন্ত্রণে উপজেলা প্রশাসন থেকে মাইকিং করা হয়েছে। কেউ চাল, ডাল পেঁয়াজসহ নিত্যপণ্যের দাম বেশি নিলে এবং সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পাওয়া গেলে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।তিনি আরো বলেন বেশি দামে চাল বিক্রি ও বেচাকেনার রশিদ না থাকায় ইতিমধ্যে একটি চালকল মালিক সহ ৪ জন চাল ব্যাবসায়ীকে ভ্রাম্যমান আদালতে জরিমানা করা হয়েছে ।

এই বিভাগের আরো খবর