ঢাকা, শুক্রবার   ২৯ অক্টোবর ২০২১,   কার্তিক ১৩ ১৪২৮

ব্রেকিং:
সাবার জ্ঞাতার্থে বিশেষ অবগতি: শরীফুল ইসলাম, প্রতিদিনের চিত্র পত্রিকার`প্রিন্ট এবং অনলাইন পোর্টাল`-এ আর কাজ করছেন না। অতএব, তার সাথে পত্রিকা সংশ্লিষ্ট বিষয়ে যোগাযোগ না করার জন্য অনুরোধ করা হল। দৈনিক প্রতিদিনের চিত্র পত্রিকার `প্রিন্ট এবং অনলাইন পোর্টাল`-এ প্রতিনিধি নিয়োগ পেতে অথবা `যেকোন কারণে` আর্থিক লেনদেন না করার জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের এবং প্রতিনিধিদের অনুরোধ করা হল।
সর্বশেষ:
অবশেষে নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘দুর্নীতি’র তদন্ত করছে ‘দুদক’ ২য় ডোজের টিকা প্রয়োগ শুরু, পাবে ৮০ লাখ মানুষ মোহনবাগানের দায়িত্ব ছাড়লেন সৌরভ গাঙ্গুলি চাকরি হারালেন বার্সা কোচ কোম্যান রায়পুরায় দু’গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ৪০ অ্যাপস ছাড়া চুক্তিভিত্তিক রাইড শেয়ারে কঠোর ব্যবস্থা: বিআরটিএ সাবার জ্ঞাতার্থে বিশেষ অবগতি: শরীফুল ইসলাম, প্রতিদিনের চিত্র পত্রিকার`প্রিন্ট এবং অনলাইন পোর্টাল`-এ আর কাজ করছেন না। অতএব, তার সাথে পত্রিকা সংশ্লিষ্ট বিষয়ে যোগাযোগ না করার জন্য অনুরোধ করা হল।

জলাবদ্ধতায় নাকাল সাতক্ষীরা পৌরবাসী, নিরসনের দাবিতে মানববন্ধন

এম,এ মামুন, সাতক্ষীরা

প্রকাশিত: ৩১ আগস্ট ২০২০  

ছবি- প্রতিদিনের চিত্র

ছবি- প্রতিদিনের চিত্র


জলাবদ্ধতায় যেন নাকাল পৌরবাসী,কোনো কিছুতেই এর থেকে পরিত্রান পাওয়া যাচ্ছেনাা।দূূূূর্বীসহ হয়ে উঠেছেে জনজীবন। এমতাবস্থায় সাতক্ষীরা পৌরসভার জলাবদ্ধতা দূরীকরণের দাবীতে মানববন্ধন কর্মসুচি পালিত হয়েছে। সোমবার বেলা ১০টায় রাধানগর ও কামালনগর এলাকাবাসীর উদ্যোগে শহরের কেষ্ট ময়রার ব্রীজের পাশে উক্ত মানববন্ধন কর্মসুচি পালিত হয়।

জেলা শ্রমিক ফেডারেশনের সহ-সভাপতি মকবুল হোসেনর সভাপতিত্বে মানববন্ধনে চলাকালে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির সাতক্ষীরা জেলা শাখার সম্পাদক ও জেলা নাগরিক অন্দোলন মে র আহবায়ক এড. ফাহিমুল হক কিসলু, সিপিবি’র জেলা শাখার সভাপতি আবুল হোসেন, জেলা জাসদের সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক ইদ্রিস আলী, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি কাজী আক্তার হোসেন, গণফোরামের সাতক্ষীরা জেলা শাখার সম্পাদক আলী নূর খান বাবুল, সাংবাদিক রঘুনাথ খাঁ, মেহেদী আলী সুজয়।

উক্ত মানববন্ধন কর্মসুচিতে বক্তারা বলেন, সাতক্ষীরা পৌরসভার নয়টি ওয়ার্ডের মধ্যে সাতটি ওয়ার্ডেই জলাবদ্ধ হয়ে পড়েছে। অপর দু’টি ওয়ার্ডে আংশিক জলাবদ্ধতা রয়েছে। এতে মানুষের জীবনযাত্রা অসহনীয় ও অতীষ্ঠ হয়ে পড়েছে। পানিতে ডুবে গেছে রাস্তা-ঘাট। মানুষ ট্রলিতে, ভেলায় ও নৌকায় যাতায়াত করছেন। ঘরের মধ্যে ও পানি ঢুকে বেড়েছে সাপের উপদ্রব। পানির কারনে অনেকেই ঘরের মধ্যে রান্না করতেও পারছেন না। ভেঙে পড়েছে স্যানিটেশন ব্যবস্থা।

বক্তারা আরো বলেন, প্রতি বছর পৌরসভায় বরাদ্দকৃত টাকা কালভার্ট ও নর্দমা সংস্কারের নামে লুটপাট হয়ে যায়। সে বরাদ্দকৃত টাকা দিয়ে কোন কাজ হয়না ফলে দীর্ঘ ১২ বছর ধরে সাতক্ষীরা পৌরসভার বদ্দীপুর, কামালনগরের একাংশ,কাটিয়া মাঠপাড়া, ডেইয়ের বিল, রথখোলাসহ বিস্তীর্ণ অলের মানুষ একটু বৃষ্টিতেই পানিবন্দি হয়ে থাকে। বক্তারা এ সময় দ্রুত পৌরসভার জলাবদ্ধতা দূরীকরণের জোর দাবী জানিয়েছেন।

এই বিভাগের আরো খবর