ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৬ অক্টোবর ২০২১,   কার্তিক ১০ ১৪২৮

ব্রেকিং:
দৈনিক প্রতিদিনের চিত্র পত্রিকার `প্রিন্ট এবং অনলাইন ভার্সন`-এ প্রতিনিধি নিয়োগ পেতে আর্থিক লেনদেন না করার জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের অনুরোধ করা হল। নিয়োগ পেতে কেউ অসদুপায়ে আর্থিক লেন-দেন করে থাকলে তার জন্য কর্তৃপক্ষ (প্রকাশক ও সম্পাদক) দায়ী থাকবেনা।
সর্বশেষ:
স্থানীয় সরকার নির্বাচনে বিতর্কিতদের বাদ দিয়ে ত্যাগীদের নাম পাঠানোর নির্দেশ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ডিও লেটার জালিয়াতি, সতর্কতা জারি সাহেদকে জামিন দিতে হাইকোর্টের রুল আফগানিস্তান সীমান্তে আগ্রাসনের বিরুদ্ধে তালেবানের হুঁশিয়ারি সুদানের প্রধানমন্ত্রী আব্দাল্লাহ হামদক গৃহবন্দি বাংলাদেশে কেউ সংখ্যালঘু নয়: তথ্যমন্ত্রী

জিংক (ব্রি-৭৪) ধানের বানিজ্যিক করনের সক্ষমতা বৃদ্ধি প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত

বানারীপাড়া (বরিশাল) প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৩ অক্টোবর ২০২১  

বানারীপাড়ায় জিংক (ব্রি ৭৪) ধানের বানিজ্যিক করনের সক্ষমতা বৃদ্ধি প্রশিক্ষণ কর্মশালায় বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের আঞ্চলিক কার্যালয় বরিশাল জেলার উর্ধ্বতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মো.আবু সাইদ।, ছবি- প্রতিদিনের চিত্র।

বানারীপাড়ায় জিংক (ব্রি ৭৪) ধানের বানিজ্যিক করনের সক্ষমতা বৃদ্ধি প্রশিক্ষণ কর্মশালায় বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের আঞ্চলিক কার্যালয় বরিশাল জেলার উর্ধ্বতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মো.আবু সাইদ।, ছবি- প্রতিদিনের চিত্র।

 

বরিশালের বানারীপাড়া উপজেলায় হারভেস্টপ্লাস বাংলাদেশের বায়োকটিফাইভ ফসলের বানিজ্যিক করন প্রকল্পের সহায়তায় এবং স্বদেশ উন্নয়ন কেন্দ্র (সুখ) এর আয়োজনে জিংক ধানের (ব্রিধান-৭৪) ওপর সক্ষমতা বৃদ্ধি প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

 

মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) সকালে উপজেলা কৃষি অফিসের হলরুমে প্রশিক্ষন কর্মশালায় কৃষি কর্মকর্তা এস এম মিজান মাহমুদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ কর্মশালায় প্রধান অতিথি  ছিলেন বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের আঞ্চলিক কার্যালয় বরিশাল জেলার উর্ধ্বতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মো.আবু সাইদ।

 

এসময় তিনি বলেন,জিংক মানুষের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থায় বিশেষ ভূমিকা পালন করে। জিংকের অভাবে জ্বর ব্যাকটেরিয়াজনিত সংক্রমণ এ প্রবণতা বৃদ্ধি পায়। গর্ভবতী মায়ের জিংকের অভাবে শারীরিক দুর্বলতা দেখা দেয় গর্ভের বাচ্চার স্নায়ুতন্ত্র ক্ষতিগ্রস্ত হয় এবং শিশুদের মানসিক দক্ষতা ও মেধার সমন্বয়হীনতা পরিলক্ষিত হয়।

 

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশে শতকরা ৪৪ ভাগ শিশু এবং ৫৭ ভাগ মহিলা জিংক এর অভাবজনিত কারনে অপুষ্টিতে ভুগছে। এছাড়াও ১৫/১৯ বছরের শতকরা ৪০ ভাগ মেয়েরা জিংক এর অভাবজনিত কারণে দিনদিন খাটো হয়ে যাচ্ছে, তাই ভাতের মধ্যে জিংক এর পরিমাণ অল্প থাকায় বায়োফর্টিফিকেশন এর মাধ্যমে ধান উদ্ভাবন করা হয়েছে। যা আমাদের জিংক এর অভাবজনিত অপুষ্টি পুরণে বিশেষ ভূমিকা পালন করবে।

 

প্রশিক্ষন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, বিভাগীয় সমন্বয়কারী হারভেস্টপ্লাস ও কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা জাহিদ হোসেন, এবং কৃষিবিদ মো. আল আমিন, স্বদেশ উন্নয়ন কেন্দ্রের জেলা সমন্বয়কারী মো. জাহিদুল আলম সেলিম এবং বিধানচন্দ্র প্রমুখ।

 

এই বিভাগের আরো খবর