Berger Paint

ঢাকা, শনিবার   ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩,   মাঘ ২২ ১৪২৯

ব্রেকিং:
চট্টগ্রাম, গাজীপুর, কক্সবাজার, নারায়ানগঞ্জ, পাবনা, টাঙ্গাইল ও ময়মনসিংহ ব্যুরো / জেলা প্রতিনিধি`র জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের আবেদন পাঠানোর আহ্বান করা হচ্ছে। শিক্ষাগত যোগ্যতা- স্নাতক, অভিজ্ঞদের ক্ষেত্রে শিক্ষাগত যোগ্যতা শিথিল যোগ্য। দৈনিক প্রতিদিনের চিত্র পত্রিকার `প্রিন্ট এবং অনলাইন পোর্টাল`-এ প্রতিনিধি নিয়োগ পেতে অথবা `যেকোন বিষয়ে` আর্থিক লেনদেন না করার জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের এবং প্রতিনিধিদের অনুরোধ করা হল।
সর্বশেষ:
সৌদি আরবে এক বছরে ১৪৭ জনের মৃত্যুদণ্ড আ.লীগ জনগণকে দেওয়া ওয়াদা পূরণ করে : প্রধানমন্ত্রী বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজের খরচ বাড়ল দেড় লাখ মিয়ানমারে জরুরি অবস্থা আরও ছয় মাস বাড়ল আমি বাংলাদেশে বাবার কাছে থাকতে চাই: লায়লা রিনা

ডায়াবেটিক রোগীদের ত্বকের সমস্যা এবং করণীয়

প্রতিদিনের চিত্র বিডি ডেস্ক

প্রকাশিত: ২৬ ডিসেম্বর ২০২২  

ছবি- সংগৃহীত।

ছবি- সংগৃহীত।

 

ডায়াবেটিক রোগীদের যেহেতু রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম থাকে, তাই তাদের ত্বকের সমস্যা বেশি দেখা দেয়। ডায়াবেটিক রোগীদের যেসব ত্বকের সমস্যা বেশি হয় সেগুলো হচ্ছে—

 

ডায়াবেটিক রোগীদের চুলকানি

ডায়াবেটিক রোগীদের সাধারণত চুলকানি বেশি হয়। চুলকানি প্রতিরোধ করতে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে। ত্বক শুষ্ক রাখা যাবে না, লোশন বা তেল ব্যবহার করা যেতে পারে।

 

ফাঙ্গাস দিয়ে ইনফেকশন

এই ইনফেকশনগুলো সাধারণত ভেজা স্যাঁতসেঁতে জায়গায় বেশি হয়, যেমন—আঙুলের ফাঁকে, নখের আশপাশে, বগলের নিচে, দুই ঊরুর মাঝে। মহিলাদের মাসিকের রাস্তায়ও চুলকানি হতে পারে।

 

ব্যাকটেরিয়া দিয়ে ইনফেকশন

ব্যাকটেরিয়া দিয়ে ইনফেকশনে ত্বক লাল হয়ে ফুলে যেতে পারে, ব্যথা হতে পারে। ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ ও যথাযথ অ্যান্টিবায়োটিক এর চিকিৎসা।

এ ছাড়া কিছু ত্বকের সমস্যা আছে যেগুলো শুধু ডায়াবেটিক রোগীদেরই হয়। সেগুলো হচ্ছে—

 

ঘাড় ও বগলে কালো দাগ বা অ্যাকানথোসিস নাইগ্রিকেনস

সাধারণ যাদের ওজন বেশি, তাঁদের মধ্যে এটি বেশি দেখা যায়। যাঁদের ডায়াবেটিস নেই কিন্তু এ রকম কালো দাগ আছে তাঁরা ভবিষ্যতে ডায়াবেটিস হওয়ার ব্যাপারে সতর্ক থাকবেন। এই কালো দাগের সবচেয়ে ভালো চিকিৎসা হচ্ছে ওজন কমানো। কিছু ক্রিম ব্যবহার করা যায় দাগ কমানোর জন্য।

 

অ্যালার্জির সমস্যা
 
কিছু ওষুধ থেকে অ্যালার্জির সমস্যা হতে পারে। এমনকি ইনসুলিন দেওয়ার পরও হতে পারে। এ রকম হলে আপনার ডাক্তারের সঙ্গে পরামর্শ করুন।

 

ডায়াবেটিস থেকে ফোসকা

ডায়াবেটিস থেকে হাতে-পায়ে ফোসকা হতে পারে। সাধারণত এমনি এমনি ভালো হয়ে যায়। ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে।

 

ডায়াবেটিসে ফুট বা পায়ে ক্ষত

ডায়াবেটিক রোগীদের পায়ের সংবেদনশীলতা কম থাকে। তাই তাঁরা আঘাত পেলে বুঝতে পারে না এবং তা বড় আকার ধারণ করে এমনকি পা কেটে ফেলতে হতে পারে। ঝুঁকি এড়াতে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে।

 

করণীয়

♦ ডায়াবেটিস ভালো নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে। ভালো নিয়ন্ত্রণ বলতে বোঝায় খালি পেটে ৬-৭, ভরা পেটে ৭-৯ মিলি মোল/লিটার।

♦ ত্বক পরিষ্কার রাখতে হবে।

♦ বেশি গরম পানি দিয়ে গোসল করা যাবে না।

♦ ত্বক বেশি শুষ্ক রাখা যাবে না, বিশেষ করে শীতকালে ময়েশ্চারাইজিং লোশন বা তেল ব্যবহার করতে পারেন।

প্রতিদিন রাতে শোয়ার আগে পা পরীক্ষা করতে হবে কোনো আঘাত লাগল কি না, পায়ের আঙুলের ফাঁকে দেখতে হবে কোনো ঘা হলো কি না। বেশি শক্ত জুতা পরা যাবে না, যে জুতা থেকে পায়ে আঘাত লাগে বা ঘা হবে।

♦ প্রয়োজনে ডায়াবেটিস ও হরমোন রোগ বিশেষজ্ঞ ও চর্ম বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিবেন।