ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৫ জুন ২০২১,   আষাঢ় ১ ১৪২৮

ব্রেকিং:
পরীমণির অভিযোগ গ্রহণ করেছে পুলিশ করোনায় রাজশাহী মেডিকেলে আরও ১২ জনের মৃত্যু রাঙামাটিতে বাড়িতে ঢুকে গ্রামপ্রধানকে গুলি করে হত্যা
সর্বশেষ:
নেইমারময় জয় দিয়েই কোপা শুরু ব্রাজিলের দিনাজপুরে ৭ দিনের লকডাউন টেস্ট র‍্যাংকিংয়ে ভারতকে টপকে শীর্ষে নিউজিল্যান্ড

ডিজিটাল শপিংয়ে প্রতারণা আর কতকাল?

আকিব হোসাইন

প্রকাশিত: ২৪ মে ২০২১  

মো: আকিব হোসাইন, ছবি- প্রতিদিনের চিত্র।

মো: আকিব হোসাইন, ছবি- প্রতিদিনের চিত্র।


অনলাইন শপিং! কথাটা শুনলে মনে হয় যেন আমরা কালের বিবর্তনে আধুনিক যুগে পদার্পন করেছি। নিজেকে আমরা অন্যরকমভাবে দেখছি। অথচ পূর্বে মানুষ কোনো নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য ক্রয় করার ক্ষেত্রে প্রত্যক্ষভাবে মার্কেটে গিয়ে নিজেদের পছন্দমতো পণ্য ক্রয় করতো অথচ এখন আমরা এমন এক সময়ের সাথে মিশে গেছি যার ফলে ঘরে বসে খুব সহজে মোবাইল, কম্পিউটার, ল্যাপটপ কিংবা যেকোনো ইলেকট্রিক যন্ত্রের মাধ্যমে আমরা আমাদের প্রয়োজনীয় যেকোনো পণ্য যেমনঃ চাল, ডাল, তৈল থেকে শুরু করে জামা-কাপড়, ইলেকট্রিক পণ্যসামগ্রী, কিংবা বই অর্ডার করে থাকি।

 

ই-কমার্সের যুগে ধাবিত হয়ে সবাই খুব সহজ। কারণ মার্কেটে না গিয়ে ঘরে বসে বসে যে ধরনের জিনিসপত্র পাওয়ার ইচ্ছা পোষণ করে সেগুলো খুব সহজেই পেয়ে থাকে। এতে করে আমাদের সময় অপচয় কম হয়। তবে এটাও ঠিক যে অনলাইনে সুবিধার পাশাপাশি আছে বেশ কিছু অসুবিধাও রয়েছে। বর্তমানে আমাদের দেশে হাজার হাজার অনলাইন মার্কেটের ওয়েবসাইট কিংবা অ্যাপ থেকে ক্রেতারা ব্যাপকহারে পণ্যের অর্ডার দিয়ে থাকেন। তবে অর্ডার করা সেসব পণ্য সময়মত না পাওয়া, পণ্যের মান নিম্নমানের হওয়া, অগ্রিম টাকা নিয়ে নেওয়া, ভূয়া বিজ্ঞাপন দেখিয়ে লোভনীয় অফারে ক্রেতাদেরকে আকর্ষণীয় করে তোলা ইত্যাদির মাধ্যমে এসব ডিজিটাল মার্কেটে দৈনিক ক্রেতাগণ প্রতারণার শিকার হচ্ছেন।

 

তবে কিছু কিছু অনলাইনের পণ্য ভালো মানের হলেও সিংহভাগ পণ্যের গুণাগুণ খুবই নিম্নমানের। নিম্ন পর্যায়ের পণ্য সেবার মধ্য দিয়ে একশ্রেণীর ব্যবসায়ী মেতে উঠেছেন। ক্রেতাদের সাথে অনৈতিক কর্মকান্ডে লিপ্ত হয়ে ওঠেন। এগুলো নিয়ে বেশকিছু অভিযোগ রয়েছে। এ ব্যাপারে জাতীয় ভোক্তা অধিকার আইনে অনেক মামলা করা হয়েছে যেগুলো প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। তবে অনলাইন মার্কেটিংয়ে কিছু কিছু কোম্পানি অধিক দুর্নীতির মাধ্যমে ক্রেতাসাধারণকে প্রতারিত করে থাকেন। লোভনীয় বিজ্ঞাপন এর মাধ্যমে তাদেরকে প্রতারিত করার পাশাপাশি তাদের কাছ থেকে অগ্রিম টাকা গ্রহণ করার মতোও ঘটনা ঘটে থাকে। যেসব পণ্য অর্ডার করা হয় সেসব পণ্যের মান পরিবর্তিত হয়ে যায়। সল্পদামের পণ্য দিয়ে বুঝিয়ে দেওয়া হয়। আর ই-কমার্সে অনলাইন মার্কেটগুলোর কিছু কিছু সমস্যাও দেখতে পাওয়া যায়। যেমনঃ সময়মতো ডেলিভারি না দেওয়া, পণ্যের গুণগত মানের পরিবর্তন, পণ্যসেবা না দিয়ে অগ্রিম টাকা গ্রহণ, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে লোভনীয় বিজ্ঞাপন দেখানো, চড়া দামের মূল্যের জিনিস সল্প দামে বিক্রি করে দেওয়া, বিভিন্ন দিবসভিত্তিক অফারে আকর্ষণীয় করে তোলা ইত্যাদি।

 

কিছু ছোট ছোট কোম্পানির কারণে বড় কোম্পানিগুলোর মান ক্ষুন্ন হচ্ছে। অধিক দামের মূল্যের পণ্য সল্প দামে বিক্রয় করা হচ্ছে। সাধারণ মানুষদের মাঝে অসচেতনতার কারণে মানুষ প্রতিনিয়ত প্রতারণার শিকারে আবদ্ধ হচ্ছে। আর এই বিষয়টি গ্রাম অঞ্চলের মানুষদের সাথে বেশি ঘটে থাকে। আবার বিভিন্ন কোম্পানিগুলোর প্রতারণা অধিকহারে বৃদ্ধি পাচ্ছে। সম্প্রতি আমার এক ফ্রেন্ড একটি অনলাইন মার্কেট থেকে মোবাইলের মাধ্যমে অর্ডার করেছিল। অর্ডার করার পর পণ্য ডেলিভারির তারিখ অনুযায়ী পরবর্তীতে পণ্য পৌঁছে দেওয়া হয় নি বরং পণ্যের মানের পরিবর্তন হয়ে যায়। সাইজের পরিবর্তন ঘটেছে। তাই আসুন অনলাইনে কেনাকাটার ব্যাপারে সতর্কতা অবলম্বন করি। পণ্য ক্রয় করার পূর্বে কোম্পানিগুলোকে ভালোভাবে যাচাই-বাচাই করে নেই। তাহলে আর প্রতারিত হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে না। তাছাড়া লোভনীয় অফার গ্রহণের পূর্বে বিশেষভাবে সর্তকতা অবলম্বন করতে হবে। ভূয়া বিজ্ঞাপনে মনোযোগী হওয়া। পণ্য কেনাকাটা ক্ষেত্রে ভালোভাবে যাচাই করে নেওয়া। অনলাইনে প্রতারিত হলে তাৎক্ষণিকভাবে আইনের আশ্রয় নেওয়া।প্রয়োজনে জাতীয় ভোক্তা অধিকার আইনে মামলা করা। যাতে করে ভুয়া কোম্পানিগুলো সাধারণ মানুষকে ধোকা দেওয়ার ব্যাপারে খুবই সতর্ক হয়ে পড়ে।

 

সর্বশেষ, বিজ্ঞাপন দেখিয়ে বিভিন্ন ভাবে প্রতারণা করা এখন নিত্যনৈমিত্তিক দিনের ঘটনা। ডিজিটাল শপিংয়ে ডিজিটাল প্রতারণা বন্ধ করা সময়ের দাবি। কারণ অনলাইন শপিং তখনি প্রাণবন্ত হয়ে ওঠবে যখন পণ্যের গুণাগুণ ঠিক থাকবে। নির্দিষ্ট সময়ে পণ্য ক্রেতার কাছে পৌঁছে দেওয়া হবে। আর অনলাইনে এমন প্রতারণা বন্ধে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া খুবই প্রয়োজনীয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাহলেই ক্রেতা সাধারণ খুব কমই প্রতারিত হবে। এছাড়াও আমাদের প্রত্যেক নাগরিককে অনলাইন কেনাকাটায় সচেতন হতে হবে। কারণ সচেতনতাই পারে এমন প্রতারণা ঠেকাতে।


শিক্ষার্থীঃ রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ
ঢাকা কলেজ, ঢাকা

এই বিভাগের আরো খবর