ঢাকা, শনিবার   ০৪ ডিসেম্বর ২০২১,   অগ্রাহায়ণ ২০ ১৪২৮

ব্রেকিং:
দৈনিক প্রতিদিনের চিত্র পত্রিকার `প্রিন্ট এবং অনলাইন পোর্টাল`-এ প্রতিনিধি নিয়োগ পেতে অথবা `যেকোন কারণে` আর্থিক লেনদেন না করার জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের এবং প্রতিনিধিদের অনুরোধ করা হল।
সর্বশেষ:
ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় `জাওয়াদ` শুরু হচ্ছে বঙ্গভ্যাক্সের প্রথম ট্রায়াল বাংলাদেশকে বিনামূল্যে করোনার আরও টিকা দেবে যুক্তরাষ্ট্র রোনালদোর রেকর্ডের ম্যাচে জয় পেল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড

ডিজেলের দাম বৃদ্ধির প্রভাব পড়েছে কৃষিতে

প্রতিদিনের চিত্র বিডি ডেস্ক

প্রকাশিত: ২৫ নভেম্বর ২০২১  

ছবি- সংগৃহীত।

ছবি- সংগৃহীত।

 

ডিজেলের দাম বৃদ্ধির সরাসরি প্রভাব পড়েছে কৃষিতে। নতুন ফলনে বিঘাপ্রতি উৎপাদন ব্যয় বাড়ছে, দেড় থেকে ২ হাজার টাকা পর্যন্ত। প্রায় ৩০ শতাংশ বাড়ানো হয়েছে টিলার ব্যবহারের খরচ। প্রান্তিক কৃষকদের দাবি, বীজ, কীটনাশকের বাড়তি দরের কারণে উৎপাদন খরচ আগের চেয়ে বেশ বেড়েছে।কিন্ত মৌসুমে তারা ফসলের নায্যমূল্য পাচ্ছে না। এতে তাদের লোকসান গুনতে হচ্ছে।

 

উত্তরের জেলাগুলোতে চলছে রবি মৌসুমের চাষাবাদ। নতুন ফসলে ভরে উঠেছে মাঠ। আলু, গম, সরিষা বুনছেন অনেক কৃষক। উৎপাদন হচ্ছে, হরেক রকমের সবজি। ফলন ভালো হলেও মলিন কৃষকের মুখ। সার,বীজ ও কীটনাশকের দাম বৃদ্ধিতে চাষাবাদ করতে এমনিতেই হিমশিম খাচ্ছেন কৃষকরা, সেখানে মৌসুমের শুরুতেই ডিজেলের মূল্য বৃদ্ধি কৃষকের জন্য মরার ওপর খাড়ার ঘা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

 

ডিজেলের বাড়তি দামে বেড়েছে উৎপাদন ব্যয়। তাই অনেক বর্গা চাষি মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছেন আবাদ থেকে। কৃষি কর্মকর্তারাও মনে করেন, ডিজেলের দাম বৃদ্ধির নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে ফসলের আবাদে। বেড়েই চলছে খরচ।

 

এরই মধ্যে মজুরি বাড়িয়ে দিয়েছেন টিলার মালিকরা। কয়েক মাস আগেও ২০ শতাংশ জমিতে হাল চাষ করতে খরচ হত ৫শ টাকা। এখন দিতে হচ্ছে ৭শ থেকে এক হাজার টাকা। এমন পরিস্থিতিতে পণ্যের নায্যমূল্য নিশ্চিত করার দাবি জানিয়েছে স্থানীয় কৃষকরা।

এই বিভাগের আরো খবর