Berger Paint

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২,   আশ্বিন ১৪ ১৪২৯

ব্রেকিং:
চট্টগ্রাম, গাজীপুর, কক্সবাজার, নারায়ানগঞ্জ, পাবনা, টাঙ্গাইল ও ময়মনসিংহ ব্যুরো / জেলা প্রতিনিধি`র জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের আবেদন পাঠানোর আহ্বান করা হচ্ছে। শিক্ষাগত যোগ্যতা- স্নাতক, অভিজ্ঞদের ক্ষেত্রে শিক্ষাগত যোগ্যতা শিথিল যোগ্য। দৈনিক প্রতিদিনের চিত্র পত্রিকার `প্রিন্ট এবং অনলাইন পোর্টাল`-এ প্রতিনিধি নিয়োগ পেতে অথবা `যেকোন বিষয়ে` আর্থিক লেনদেন না করার জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের এবং প্রতিনিধিদের অনুরোধ করা হল।
সর্বশেষ:
এসএসসির নির্বাচনি পরীক্ষার ফল ৩০ নভেম্বরের মধ্যে প্রকাশের নির্দেশ কোনো দলকে সমর্থন নয়, বাংলাদেশে সুষ্ঠু নির্বাচন চায় যুক্তরাষ্ট্র দক্ষিণ আফ্রিকাকে ৮ উইকেটে হারিয়েছে ভারত আরও তিন বছরের সাজা পেলেন অং সান সু চি করতোয়ায় নৌকাডুবি: পঞ্চম দিনের উদ্ধার অভিযান চলছে

ডিমের হালি ৫০ টাকা

প্রতিদিনের চিত্র বিডি ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২২  

ছবি- সংগৃহীত।

ছবি- সংগৃহীত।

 

ত কয়েক দিন ধরে দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টিপাত হচ্ছে। এই বৃষ্টির প্রভাব পড়েছে নিত্যপণ্যের বাজারে। প্রতিটি সবজির দাম কেজিতে ৫-১০ টাকা বেড়েছে। সেই সাথে বেড়েছে ডিম ও মুরগির দামও। গত সপ্তাহে খুচরা বাজারে প্রতি ডজন ডিম ছিল ১৩০ থেকে ১৩৫ টাকা। ডজনে ১৫ থেকে ২০ টাকা দাম বেড়ে গতকাল তা বিক্রি করতে দেখা যায় ১৪৫ থেকে ১৫০ টাকায়।

 

ব্যবসায়ীরা বলছেন, গত কয়েক দিন ধরে চলছে টানা বৃষ্টি। দেশের বিভিন্ন স্থানে সবজির ক্ষেত ডুবে গেছে। এ ছাড়াও কৃষকরা সবজি তুলে বাজারজাতও করতে পারছেন না। ফলে বাজারে সবজির উৎপাদন কমে গেছে। চাহিদা থাকায় পাইকারি বাজারে সবজির দাম ৫ থেকে ১০ টাকা বেড়েছে। এ জন্য আমাদেরকেও বাড়তি দামে বিক্রি করতে হচ্ছে।

 

গতকাল রাজধানীর কয়েকটি বাজার ঘুরে দেখা গেছে, বাজারে বেড়েছে সব ধরনের সবজির দাম। কেজিতে দাম বেড়েছে ১০ থেকে ২০ টাকা। শসা প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৯০ টাকায়। লম্বা বেগুনের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৭০ টাকা। গোল বেগুন বিক্রি হচ্ছে ৯০ থেকে ১০০ টাকা। টমেটো বিক্রি হচ্ছে ১৩০ টাকা। শিমের কেজি ১৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এ ছাড়া করলা ৮০ টাকা, চালকুমড়া পিস ৬০ টাকা, প্রতি পিস লাউ আকারভেদে ৬০ থেকে ৭০ টাকা, মিষ্টি কুমড়ার কেজি ৫০ টাকা, চিচিঙ্গা ৬০ টাকা, পটোল ৬০ টাকা, ঢেঁড়স ৭০ টাকা, কচুরলতি ৮০, পেঁপের কেজি ৪০, ধুন্দুলের কেজি ৬০ টাকা বিক্রি হচ্ছে। বাজারে কাঁচামরিচ প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ১০০ থেকে ১২০ টাকায়। এ ছাড়া কাঁচাকলার হালি বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকায়। লেবুর হালি বিক্রি হচ্ছে ১৫ থেকে ২০ টাকা। শুকনা মরিচের কেজি ৪০০ থেকে ৪৫০ টাকা।

 

বাজারে আলুর কেজি বিক্রি হচ্ছে ৩০ টাকায়। পেঁয়াজের দাম কমেছে। দেশী পেঁয়াজের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকা কেজি। ভারতীয় পেঁয়াজের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকা। এসব বাজারে রসুনের কেজি ৪০ থেকে ৪৫ টাকা। বাজারে চায়না রসুন বিক্রি হচ্ছে ১৪৫ থেকে ১৫০ টাকায়। আদার কেজি বিক্রি হচ্ছে ৯০ থেকে ১১০ টাকায়। বাজারে খোলা চিনি প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৯০ টাকায়। প্যাকেট চিনি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৯৫ টাকায়। এ ছাড়া লাল চিনির কেজি বিক্রি হচ্ছে ১০০ টাকায়।

 

এসব বাজারে দেশী মসুরের ডালের কেজি ১৩০ টাকা। ইন্ডিয়ান মসুরের ডালের কেজি ১০০ টাকায়। লবণের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৩৮ থেকে ৪০ টাকা। বাজারে ভোজ্যতেল বিক্রি হচ্ছে ১৯৫ টাকায়।

 

বাজারে গরুর গোশতের কেজি ৬৬০ থেকে ৬৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। খাসির গোশতের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৯০০ টাকায়। বাজারে ব্রয়লার মুরগির দাম বেড়েছে। ব্রয়লার কেজি বিক্রি হচ্ছে ১৭০ থেকে ১৮০ টাকা। একদিন আগেও ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হয়েছিল ১৬০ টাকা কেজি। ২০ টাকা দাম বেড়ে সোনালি মুরগির কেজি বিক্রি হচ্ছে ৩০০ থেকে ৩২০ টাকায়। লেয়ার মুরগির কেজি বিক্রি হচ্ছে ২৭০ থেকে ২৮০ টাকায়।

এই বিভাগের আরো খবর