ঢাকা, সোমবার   ২৭ জুন ২০২২,   আষাঢ় ১৪ ১৪২৯

ব্রেকিং:
চট্টগ্রাম, গাজীপুর, কক্সবাজার, নারায়ানগঞ্জ, পাবনা, টাঙ্গাইল ও ময়মনসিংহ ব্যুরো / জেলা প্রতিনিধি`র জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের আবেদন পাঠানোর আহ্বান করা হচ্ছে। শিক্ষাগত যোগ্যতা- স্নাতক, অভিজ্ঞদের ক্ষেত্রে শিক্ষাগত যোগ্যতা শিথিল যোগ্য। দৈনিক প্রতিদিনের চিত্র পত্রিকার `প্রিন্ট এবং অনলাইন পোর্টাল`-এ প্রতিনিধি নিয়োগ পেতে অথবা `যেকোন বিষয়ে` আর্থিক লেনদেন না করার জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের এবং প্রতিনিধিদের অনুরোধ করা হল।
পদ্মায় স্বপ্নপূরণের ক্ষণগণনা
১৮দিন
:
১৯ঘণ্টা
:
০৬মিনিট
:
১০সেকেন্ড
সর্বশেষ:
রাজধানীতে অজ্ঞাত গাড়ির ধাক্কায় ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থী নিহত ফের করোনায় আক্রান্ত ফখরুল মুরগির দাম কেজিতে কমেছে ২০-২৫ টাকা পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্তে যানজট সৌদি পৌঁছেছেন ৩৮ হাজার ৮৮৯ জন হজযাত্রী, ৬ জনের মৃত্যু পদ্মা সেতুতে প্রথম টোল দিয়ে পাড়ি দিল মোটরসাইকেল পদ্মা সেতু পারাপারে যানবাহনের দীর্ঘ সারি

ঢাকার প্রায় অর্ধেক মানুষ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১২ অক্টোবর ২০২০  

ছবি- প্রতিদিনের চিত্র

ছবি- প্রতিদিনের চিত্র

রাজধানী ঢাকার অধিবাসীদের অ্যান্টিবডি পরীক্ষায় দেখা গেছে ৪৫ শতাংশ মানুষই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। করোন ভাইরাসের সংক্রমণ এবং জিন পরিবর্তন নিয়ে আইইডিসিআর এবং আইসিডিডিআরবি যৌথ একটি গবেষণায় এই তথ্য পাওয়া গেছে।


আজ সোমবার বিকালে গুলশানের একটি হোটেলে যৌথ গবেষণার এই তথ্য প্রকাশ করে সংস্থা দুটি। এই গবেষণার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের দাতা সংস্থা ইউএসএ আইডি এবং বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন এই দুটি প্রতিষ্ঠান আর্থিক সহায়তা করেন ।


সম্মিলিত অনুষ্ঠানে ওই তথ্য উপস্থাপন করেন আইসিডিডিআরবি ও আইইডিসিআরের গবেষক আর বিজ্ঞানীরা। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) মীরজাদী সেব্রিনা। ভার্চুয়াল এই অনুষ্ঠানে যোগ দেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকও।


এই গবেষণায় উঠে এসেছে, রাজধানী শহরের বস্তির প্রায় তিন চতুর্থাংশ নগরবাসী  ইতোমধ্যেই সংক্রমিত হয়েছে। 'কোভিড-১৯' আক্রান্তের কোন লক্ষণ ছাড়াই প্রায় ৪৫ শতাংশ মানুষ রক্ত পরীক্ষায় করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে।

 

অনুষ্ঠানে আইসিডিডিআরবি'র জ্যেষ্ঠ বিজ্ঞানী ফেরদৌসি কাদরি বলেন, ২৪ শতাংশ আক্রান্তদের বয়স ৬০ বছরের বেশি।


এই গবেষণার জন্য ঢাকার বিভিন্ন স্থানের সাধারণ খাবারের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল এপ্রিলের মাঝামাঝি সময় থেকে মধ্য জুলাই পর্যন্ত। এবং বস্তিতে বসবাসরত মানুষদের নমুনা সংগ্রহ কররা হয়েছিল জুলাই মাসের মাঝামাঝি সময় থেকে আগস্টের শেষ পর্যন্ত।


গবেষকেরা অভিমত- করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এবং নিয়ন্ত্রণ, চিকিৎসা ও ভ্যাকসিন প্রয়োগের ক্ষেত্রে এসব তথ্য প্রয়োজন হবে।

এই বিভাগের আরো খবর