Berger Paint

ঢাকা, সোমবার   ২৮ নভেম্বর ২০২২,   অগ্রাহায়ণ ১৪ ১৪২৯

ব্রেকিং:
চট্টগ্রাম, গাজীপুর, কক্সবাজার, নারায়ানগঞ্জ, পাবনা, টাঙ্গাইল ও ময়মনসিংহ ব্যুরো / জেলা প্রতিনিধি`র জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের আবেদন পাঠানোর আহ্বান করা হচ্ছে। শিক্ষাগত যোগ্যতা- স্নাতক, অভিজ্ঞদের ক্ষেত্রে শিক্ষাগত যোগ্যতা শিথিল যোগ্য। দৈনিক প্রতিদিনের চিত্র পত্রিকার `প্রিন্ট এবং অনলাইন পোর্টাল`-এ প্রতিনিধি নিয়োগ পেতে অথবা `যেকোন বিষয়ে` আর্থিক লেনদেন না করার জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের এবং প্রতিনিধিদের অনুরোধ করা হল।
সর্বশেষ:
প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের ফল প্রকাশ আবারও পেছালো যে কোনো মূল্যে শিক্ষা কার্যক্রম অব্যাহত রাখা হবে: প্রধানমন্ত্রী চট্টগ্রামে শিশু আয়াত হত্যা : আসামি আবীর ফের রিমান্ডে ৫০ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের কেউ পাস করেনি এসএসসিতে পাসের হার ৮৭.৪৪ শতাংশ সাংহাইয়ে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ, বিক্ষোভ

তিন ঘণ্টা আগেই সিলেটে গণসমাবেশ শুরু

প্রতিদিনের চিত্র বিডি ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৯ নভেম্বর ২০২২  

তিন ঘণ্টা আগেই সিলেটে গণসমাবেশ শুরু, ছবি- সংগৃহীত।

তিন ঘণ্টা আগেই সিলেটে গণসমাবেশ শুরু, ছবি- সংগৃহীত।

 

দুপুর ২টায় সিলেট আলিয়া মাদরাসার মাঠে বিএনপির সমাবেশ শুরু হওয়ার কথা থাকলেও নির্ধারিত সময়ের তিন ঘণ্টা আগেই সকাল ১১টা ১০ মিনিটে সমাবেশে শুরু হয়েছে।

 

জাতীয় ও দলীয় সংগীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়েছে বিএনপির বিভাগীয় এই গণসমাবেশ।

 

সমাবেশের শুরুতে বক্তব্য রাখছেন স্থানীয় নেতাকর্মীরা। বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ কেন্দ্রীয় নেতারা এখনো সমাবেশস্থলে উপস্থিত হননি।

 

এর আগে সকাল থেকেই মিছিল আর স্লোগানে মুখরিত হয়ে ওঠে সিলেট বিভাগীয় গণসমাবেশস্থল সিলেট আলিয়া মাদরাসা মাঠ। পোস্টার, ব্যানার, বিলবোর্ড এবং বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রায় উৎসবমুখর সিলেট নগরী।

 

সমাবেশকে কেন্দ্র করে শুক্রবার সকাল থেকে সিলেট ও দেশের অন্যান্য স্থানের মধ্যে বাস চলাচল বন্ধ থাকলেও বৃহস্পতিবার থেকেই বিভাগের আওতাধীন সব জেলা থেকে বিএনপি নেতাকর্মীদের তিন চাকার গাড়ি, মোটরবাইক, এবং মাইক্রোবাস, ট্রেন, ট্রাক, লঞ্চ ও নৌকা এবং ছোট যানবাহন যেমন হিউম্যান হলার, অটোরিকশায় করে সমাবেশস্থলে আসতে দেখা গেছে।

 

সমাবেশের প্রস্তুতি কার্যক্রম তদারককারী বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান বলেন, বাস ধর্মঘটের কারণে সম্ভাব্য বাধা ও চ্যালেঞ্জ এড়াতে মঙ্গলবার থেকে তাদের নেতাকর্মীরা সমাবেশে যোগ দিতে সিলেটে আসছেন।

 

তিনি বলেন, ‘গত তিন দিন ধরে সমাবেশস্থলে বিপুল সংখ্যক মানুষ জড়ো হয়েছে এবং তারা সেখানে খোলা আকাশের নিচে অবস্থান করছে। এটি একটি নজিরবিহীন গণঅভ্যুত্থান। মানুষ স্বতঃস্ফূর্তভাবে আমাদের সমাবেশে আসছে।

 

ডা. মঈন বলেন, দেশের বর্তমান পরিস্থিতি এবং নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের মূল্যবৃদ্ধিতে অতিষ্ট হওয়ায় অনেক সাধারণ মানুষ তাদের সমাবেশে যোগ দিতে আসছেন। তারাও দেশে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করতে চায়। শনিবার আমাদের জনসভা জনসমুদ্রে পরিণত হবে। এটি একটি ঐতিহাসিক সমাবেশ হবে।

 

সুনামগঞ্জ, মৌলভীবাজার ও হবিগঞ্জ জেলায় পরিবহন ধর্মঘট এবং সিলেট জেলায় অঘোষিত ধর্মঘটের কারণে সারাদেশ থেকে কার্যত বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে সিলেট বিভাগ।

 

শনিবার সকাল থেকে সিলেট জেলার বাস ধর্মঘট শুরু হওয়ার কথা থাকলেও শুক্রবার সকাল থেকে সিলেট নগরী থেকে দূরপাল্লার কোনো বাস ছেড়ে যায়নি। এতে যাত্রীদের দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

 

শুক্রবারের জন্য তাদের ভ্রমণের পরিকল্পনা করা যাত্রীদের সিলেটসহ আরো তিনটি জেলায় গণপরিবহনের জন্য অপেক্ষা করতে দেখা গেছে। তবে তিন চাকার গাড়ি ও ভাড়ায় চালিত মাইক্রোবাসের চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।

 

চলমান আন্দোলনের গতি অব্যাহত রাখার পদক্ষেপের অংশ হিসেবে গত ২৭ সেপ্টেম্বর ১০টি বিভাগীয় শহরে ধারাবাহিক জনসভার ঘোষণা দেয় বিএনপি।

 

আয়োজকরা জানান, নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ও জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির নিন্দা, ভোলা, নারায়ণগঞ্জ, মুন্সীগঞ্জ ও যশোরে পূর্বে পুলিশের হাতে দলের পাঁচ নেতাকর্মীর মৃত্যু এবং বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি নিশ্চিত করতেই এই সমাবেশ।

 

এই বিভাগের আরো খবর