Berger Paint

ঢাকা, বুধবার   ০৩ জুন ২০২০,   জ্যৈষ্ঠ ১৯ ১৪২৭

ব্রেকিং:
বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ৩ লাখ ৭৫ হাজার ছাড়িয়ে সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মাদ নাসিম করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। আজ দেশের অর্ধেক অঞ্চলে ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা, নদীবন্দরকে ১ নং সতর্ক সংকেত
সর্বশেষ:
চট্টগ্রামে ৮ চিকিৎসকসহ আরও ২০৮ জনের করোনা শনাক্ত কঙ্গোতে ৬ জনের ইবোলা শনাক্ত, ৪ জনের মৃত্যু ব্রাজিলে ৩০ হাজার ছাড়াল মৃত্যুর সংখ্যা

তিন রকমের ত্বকের যত্ন

প্রতিদিনের চিত্র ডেস্ক

প্রকাশিত: ২৭ অক্টোবর ২০১৯  

পঠিত: ৩৩৮
মডেল - জুই

মডেল - জুই

হেমন্তকালের আবহাওয়াটা একটু অন্যরকম। সকালের দিকে হালকা শীত, দুপুরে গরম, আবার রাতে শীত। অদ্ভুত এই আবহাওয়ার সঙ্গে ত্বককে মানিয়ে নিতে প্রয়োজন নানা ধরনের যত্ন। পরামর্শ দিয়েছেন শান্তিস মেকওভার অ্যান্ড বিউটি পার্লারের স্বত্বাধিকারী ও রূপবিশেষজ্ঞ আফরোজা খানম শান্তি
শুষ্ক

এ সময় থেকেই বাতাসে আর্দ্রতা কমে যেতে থাকে বলে শুষ্ক ত্বক আরও শুষ্ক হয়। হারিয়ে ফেলে স্বাভাবিক লাবণ্য। অনেক সময় দেখা দেয় বলিরেখা। ত্বকের আর্দ্রতা কমে ফেটে যাওয়ার সমস্যা হয়। তাই ত্বকের দরকার বিশেষ যত্ন।

ত্বকের শুষ্কতা দূর করতে ময়েশ্চারাইজার-সমৃদ্ধ প্রসাধনী ভালো কাজ করবে। ময়েশ্চারাইজার-সমৃদ্ধ ক্রিম, লোশন, ফেসওয়াশ ব্যবহার করতে হবে। ঘরে তৈরি ফেসপ্যাক, ক্লিনজার ব্যবহার করতে পারলে আরও ভালো। এক চা চামচ নারকেল তেলের সঙ্গে ভিটামিন ই ক্যাপসুল এবং কয়েক ফোঁটা গ্লিসারিন মিশিয়ে ব্যবহার করতে পারেন। এ সময় কাঁচা দুধও ত্বকের শুষ্কতা দূর করবে। কাঁচা দুধের সঙ্গে জয়ফল এবং বেসন মিশিয়ে ব্যবহার করলে ত্বকের শুষ্কতা থেকে রক্ষা পাবেন।

তৈলাক্ত

ত্বক তৈলাক্ত হলেও ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে হবে। এতে ত্বকের আর্দ্রতা বজায় থাকবে। তবে খেয়াল রাখবেন, সেটা যেন জেল কিংবা ওয়াটার বেইজড ময়েশ্চারাইজার হয়। তার আগে ফেসওয়াশ ব্যবহার করুন। ত্বকের সঙ্গে যে ফেসওয়াশ মানানসই হবে সেটাই ব্যবহার করুন। এ সময়ে ত্বকের মরা কোষ দূর করার জন্য সপ্তাহে অন্তত একদিন স্ক্রাব করুন। স্ক্রাব ত্বকের রুক্ষতা দূর করে ত্বককে নরম ও মসৃণ করবে। বাজারে রোজমেরি,অলিভ অয়েল আছে যা ব্যবহার করলে ত্বকের তৈলাক্ততা বাড়ে না বরং আরও মসৃণ হয়। সেসব ব্যবহার করতে হবে। বাইরে বের হলে সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে পারলে ভালো।

স্বাভাবিক ত্বক

স্বাভাবিক ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখার জন্য এ সময়ে প্রচুর পানি পান করতে হবে। প্রতিদিন কমপক্ষে আট গ্লাস পানি পান করা চাই। অন্যদিকে গোসলের পানি হতে হবে স্বাভাবিক তাপমাত্রার। গরম পানি ব্যবহার করা যাবে না। গোসলের পরে ঘরে বানানো ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করলে ভালো। সমপরিমাণে গোলাপ জল, গ্লিসারিন এবং অলিভ অয়েল মিশিয়ে একটা বোতলে রেখে দিতে হবে। গোসলের পর ওই মিশ্রণ ঝাঁকিয়ে পুরো শরীরে ব্যবহার করলে ভালো। এতে ত্বক ময়েশ্চার হবে এবং উজ্জ্বলতা বাড়বে। এক্সট্রা ভার্জিন নারকেল তেল স্বাভাবিক ত্বকের জন্য দারুণ কাজ করে।