Berger Paint

ঢাকা, শনিবার   ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩,   মাঘ ২২ ১৪২৯

ব্রেকিং:
চট্টগ্রাম, গাজীপুর, কক্সবাজার, নারায়ানগঞ্জ, পাবনা, টাঙ্গাইল ও ময়মনসিংহ ব্যুরো / জেলা প্রতিনিধি`র জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের আবেদন পাঠানোর আহ্বান করা হচ্ছে। শিক্ষাগত যোগ্যতা- স্নাতক, অভিজ্ঞদের ক্ষেত্রে শিক্ষাগত যোগ্যতা শিথিল যোগ্য। দৈনিক প্রতিদিনের চিত্র পত্রিকার `প্রিন্ট এবং অনলাইন পোর্টাল`-এ প্রতিনিধি নিয়োগ পেতে অথবা `যেকোন বিষয়ে` আর্থিক লেনদেন না করার জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের এবং প্রতিনিধিদের অনুরোধ করা হল।
সর্বশেষ:
সৌদি আরবে এক বছরে ১৪৭ জনের মৃত্যুদণ্ড আ.লীগ জনগণকে দেওয়া ওয়াদা পূরণ করে : প্রধানমন্ত্রী বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজের খরচ বাড়ল দেড় লাখ মিয়ানমারে জরুরি অবস্থা আরও ছয় মাস বাড়ল আমি বাংলাদেশে বাবার কাছে থাকতে চাই: লায়লা রিনা

নবীন শিক্ষার্থীদের নিয়ে জবি ছাত্রলীগের হাতাহাতি, সাংবাদিক হেনস্তা

জবি প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২২ জানুয়ারি ২০২৩  

ছবি- প্রতিদিনেরচিত্র বিডি।

ছবি- প্রতিদিনেরচিত্র বিডি।

 

গন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে (জবি) সদ্য ভর্তি হওয়া নবীন শিক্ষার্থীদের দলে ভেড়ানো নিয়ে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। এসময় পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সাংবাদিক হেনস্তার শিকার হয়েছেন।

 

রবিবার (২১ জানুয়ারি) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাষা শহীদ রফিক ভবনের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

 

জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম আকতার হোসাইন ও সভাপতি মো. ইব্রাহীম ফরাজির অনুসারী ইমরুল নিয়াজের মধ্যে এক নবীন শিক্ষার্থীকে নিয়ে হাতাহাতি হয়। তখন দুই গ্রুপের মধ্যে হট্টগোলের সৃষ্টি হয় এবং হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।

 

এসময় বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাবের সাংবাদিক রিদুয়ান ইসলাম ঘটনার ভিডিও ধারণের সময় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম আকতার হোসাইনের অনুসারী, পরিসংখ্যান বিভাগ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহিন আলম ও ব্যবস্থাপনা বিভাগ ছাত্রলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক তানিম ফারহান ধাক্কা দিয়ে মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে এবং হেনস্তা করে।

 

ভুক্তভোগী সাংবাদিক রিদুয়ান ইসলাম বলেন, 'আমি পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় শাহিন আলম ও তানিম ফারহান আমাকে এসে ধাক্কা দেয়। হাতে থাকা মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে এবং ধাক্কা দিতে থাকে।'

 

এ বিষয়ে শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম আকতার হোসাইন বলেন, 'এটা তেমন কোনো ঝামেলা না। যার সাথে এমন ভুল বোঝাবুঝির ঘটনা ঘটেছে তাকে সহ আমার সাথে দেখা করো।'

 

সভাপতি মো. ইব্রাহীম ফরাজি বলেন, 'আমি ঘটনার সময় সেখানে ছিলাম। সাংবাদিককে চিনতে পারেনি সেজন্য ভিডিও করার সময় এমন ঘটনা ঘটেছে। আমি সাথে সাথেই সবাইকে সতর্ক করে দিয়েছি। ভবিষ্যতে যাতে এমন ঘটনা না ঘটে সেজন্যও নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। ছাত্রলীগের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করে এমন ঘটনা যাতে না ঘটে সেজন্য আমরা সবসময়ই কর্মীদের নির্দেশনা দিয়ে থাকি।'

 

এর আগে গতবছরের ৪ ডিসেম্বর শাখা ছাত্রলীগ কর্তৃক বিএনপি নেতা ইশরাক হোসাইন এর ওপর হামলার ঘটনার সময়ও পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে চার সাংবাদিকের ওপর হামলা করে মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

এই বিভাগের আরো খবর