ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৬ মে ২০২২,   জ্যৈষ্ঠ ১২ ১৪২৯

ব্রেকিং:
চট্টগ্রাম, গাজীপুর, কক্সবাজার, নারায়ানগঞ্জ, পাবনা, টাঙ্গাইল ও ময়মনসিংহ ব্যুরো / জেলা প্রতিনিধি`র জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের আবেদন পাঠানোর আহ্বান করা হচ্ছে। শিক্ষাগত যোগ্যতা- স্নাতক, অভিজ্ঞদের ক্ষেত্রে শিক্ষাগত যোগ্যতা শিথিল যোগ্য। দৈনিক প্রতিদিনের চিত্র পত্রিকার `প্রিন্ট এবং অনলাইন পোর্টাল`-এ প্রতিনিধি নিয়োগ পেতে অথবা `যেকোন বিষয়ে` আর্থিক লেনদেন না করার জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের এবং প্রতিনিধিদের অনুরোধ করা হল।
সর্বশেষ:
রাজধানীতে বাসা থেকে দুই যুবকের মরদেহ উদ্ধার প্রেমিকাকে ভিডিও কলে রেখে কলেজছাত্রের আত্মহত্যা বাইডেন যেতেই একসঙ্গে ৩ ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ল উত্তর কোরিয়া টেক্সাসে স্কুলে গুলি: বাইডেনের ক্ষোভ, পতাকা অর্ধনমিত রাখার ঘোষণা গুলি করে খুন করা হয়েছে অভিনেত্রী পল্লবীকে! জার্মানিতেও ছড়িয়ে পড়ছে মাঙ্কিপক্স মেক্সিকোতে বন্দুকধারীদের হামলায় নিহত ১১

পেঁয়াজের কেজি ২১ টাকা!

প্রতিদিনের চিত্র ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৪ মার্চ ২০২০  

ছবি - সংগৃহীত

ছবি - সংগৃহীত

রোববার দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে প্রথম দফায় ভারত থেকে ৮ হাজার মেট্রিক টন পেঁয়াজ বাংলাদেশে প্রবেশ করবে বলে জানিয়েছে হিলি স্থলবন্দরের আমদানিকারকরা। টানা সাড়ে ৫ মাস বন্ধ থাকার ভারত থেকে প্রতি কেজি প্রায় ২১ টাকা দরে পেঁয়াজ আমদানি শুরু হচ্ছে।

গত ২৬ ফেব্রুয়ারি থেকে ভারত পেঁয়াজ রফতানিতে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার পর ইতিমধ্যে ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানিতে ‘ইমপোর্ট পারমিটে’র আবেদনের পাশাপাশি এলসি (লেটার অব ক্রেডিট) খুলেছে হিলি স্থলবন্দরের আমদানিকারকরা। প্রতি টন পেঁয়াজের মূল্য ধরা হয়েছে ২৫০ ডলার যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ২১ টাকা কেজি।

হিলি স্থলবন্দরের বেশ কয়েকজন ব্যবসায়ী ইতিমধ্যেই প্রতিটন পেঁয়াজ ২৫০ মার্কিন ডলার মূল্যে ভারত থেকে ৮ হাজার মেট্রিক টন পেঁয়াজ আমদানির জন্য এলসি খুলেছেন বলে জানা গেছে।

হিলি স্থলবন্দর আমদানি-রফতানিকারক গ্রুপের সভাপতি হারুন-উর রশিদ জানান, ভারত বর্তমানে পেঁয়াজের দাম কমিয়েছে। ভারতের কৃষিপণ্য মূল্য নির্ধারণী সংস্থা 'ন্যাপেড' প্রতিটন পেঁয়াজের মূল্য নির্ধারণ করেছে ২৫০ মার্কিন ডলার।

তিনি জানান, এই দরে তিনি নিজেও ১ হাজার টন পেঁয়াজ আমদানির জন্য এলসি খুলেছেন। সব ঠিকঠাক থাকলে রোববার থেকে ভারতের পেঁয়াজ হিলি স্থলবন্দর দিয়ে বাংলাদেশ প্রবেশ করবে।

হিলি স্থলবন্দরের আমদানিকারকরা জানিয়েছেন, অভ্যন্তরীণ বাজারে পেঁয়াজের সংকট ও মূল্যবৃদ্ধির কারণ দেখিয়ে গত বছরের ২৯ সেপ্টেম্বর থেকে পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করে দেয় ভারত সরকার। এরপর গত ২৬ ফেব্রুয়ারি পেঁয়াজ রফতানির সেই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয় ভারত।

এই বিভাগের আরো খবর