Berger Paint

ঢাকা, সোমবার   ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০,   আশ্বিন ১৩ ১৪২৭

ব্রেকিং:
১৫ বছরের মধ্যে ১০ বছরই আয়কর দেননি ট্রাম্প! চির নিদ্রায় শায়িত অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম অস্ত্র মামলায় সাহেদ করিমের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ২৪ বলে ৮২, ৯ বলে ৭ ছক্কা, নতুন রেকর্ড আইপিএলে এমসি কলেজে স্বামীকে বেঁধে রেখে স্ত্রীকে গণধর্ষণ: ছাত্রলীগ নেতা রাজনও গ্রেফতার এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গণধর্ষণ : রনি ও রবিউল গ্রেফতার ৭৪-এ পা রাখলেন শেখ হাসিনা
সর্বশেষ:
সৌদিতে শিডিউল ফ্লাইটের অনুমতি পেয়েছে বিমান ড. কামাল ও আসিফ নজরুল ঢাবি এলাকায় অবা‌ঞ্ছিত : সন‌জিত সাহেদের বিরুদ্ধে অস্ত্র মামলার রায় আজ কাশ্মীর সীমান্তে পাক-ভারত উত্তেজনা, এক সেনা নিহত

পেঁয়াজের ঝাজ আবারও বেড়েছে!

প্রতিদিনের চিত্র ডেস্ক

প্রকাশিত: ৩১ জানুয়ারি ২০২০  

পঠিত: ১৬২
ছবি - সংগৃহীত

ছবি - সংগৃহীত

অস্বাভাবিক বেড়ে যাওয়া পেঁয়াজের দাম ধীরে ধীরে বেশ কমেছিল। দেশীয় নতুন পেঁয়াজের সরবরাহ শুরু হওয়ার পরেই এই দাম কমতে শুরু করে। তবে গত চার দিন ধরে রাজধানীসহ বিভিন্ন জেলায় খুচরা ও পাইকারি পর্যায়ে পেঁয়াজের দাম একযোগে বৃদ্ধি পেয়েছে। এখন পাইকারি বাজারে প্রতিকেজি দেশি পেঁয়াজ ১২০ থেকে ১৩০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে, যা আগের সপ্তাহে ৭০ থেকে ৮০ টাকা ছিল। চীন থেকে আমদানি করা পেঁয়াজ পাইকারিতে ৫৫ থেকে ৬০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে, যা একদিন আগেও ৪০ থেকে ৪৫ টাকায় বেচাকেনা হয়েছে।

টানা কয়েক দিন স্থিতিশীল থাকার পর হঠাৎ করে আবার দাম বেড়েছে পেঁয়াজের। সপ্তাহের ব্যবধানে পাইকারি ও খুচরা বাজারে মসলাপণ্যটির দাম কেজিতে ৩০ থেকে ৫০ টাকা বেড়েছে। ব্যবসায়ীরা বলছেন, চাহিদার তুলনায় সরবরাহ কম থাকায় পেঁয়াজের দাম আবার বেড়েছে। এবার বৈরী আবহাওয়ার কারণে হালি পেঁয়াজ বপনে সময় লেগেছে। এ কারণে দেরিতে উঠছে। ফলে মুড়িকাটা পেঁয়াজ প্রায় শেষ পর্যায়ে রয়েছে। এ কারণে দাম বাড়ছে।

দাম বৃদ্ধির বিষয়ে কারওয়ান বাজারে পেঁয়াজের পাইকারি ব্যবসায়ী আব্দুর রশিদ বলেন, আগাম মুড়িকাটা পেঁয়াজের মৌসুম শেষ হওয়ায় দাম বাড়ছে। গত সোমবার থেকে পাইকারি বাজারে পেঁয়াজের দাম বাড়তে শুরু করেছে। এর ফলে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত কেজিতে ৪০ থেকে ৪৫ টাকা বেড়েছে। মোকামে পেঁয়াজ কমে আসছে। এ কারণে দাম বাড়ছে। তবে দেশি নতুন পেঁয়াজ উঠলে দাম কমবে বলে জানান তিনি।

সপ্তাহের ব্যবধানে খুচরা বাজারে পেঁয়াজের দাম আবার দেড়গুণ বেড়েছে। প্রতিকেজি দেশি নতুন পেঁয়াজ ৮০ থেকে ৯০ টাকায় নেমেছিল। এখন তা দাম বেড়ে ১৪০ থেকে ১৫০ টাকায় উঠেছে। আমদানি করা পাকিস্তানি পেঁয়াজও একই হারে বেড়ে ১৪০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। চীনা পেঁয়াজ কেজিতে ৩০ টাকা বেড়ে ৭০ থেকে ৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

খুচরা বিক্রেতারা জানান, দেশি পেঁয়াজের সরবরাহ বৃদ্ধির পরে আমদানি পেঁয়াজ বাজারে বেচাকেনা কমে যায়। এর ফলে এখন বাজারে আমদানি পেঁয়াজ আসা কমেছে। এ অবস্থায় দেশি পেঁয়াজের সরবরাহ কম হচ্ছে। ফলে দাম বেড়ে যাচ্ছে।

এছাড়া সপ্তাহের ব্যবধানে মসুর ডালের দাম কেজিতে ১০ টাকা বেড়ে নেপালি মসুর ১২০ থেকে ১৩০ টাকা হয়েছে। বড় দানা ৭০ থেকে ৮০ টাকা ও মাঝারি দানা মসুর ডাল ৯০ থেকে ১০০ টাকায় উঠেছে। আদার কেজিতে ২০ টাকা বেড়ে মানভেদে ১২০ থেকে ১৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এদিকে বেড়েই যাচ্ছে শুকনা মরিচের দাম। কেজিতে ৩০ টাকা বেড়ে এখন ২৫০ থেকে ৩৫০ টাকায় কিনতে হচ্ছে।

 

এই বিভাগের আরো খবর