ঢাকা, রোববার   ১৮ এপ্রিল ২০২১,   বৈশাখ ৫ ১৪২৮

ব্রেকিং:
কিংবদন্তি অভিনেত্রী কবরী মারা গেছেন বিমানের সৌদিগামী ফ্লাইট বাতিল, বিমানবন্দরে যাত্রীদের বিক্ষোভ
সর্বশেষ:
পশ্চিমবঙ্গে পঞ্চম দফায় ভোটগ্রহণ চলছে বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ছাড়াল ৩০ লাখ

প্রকৃতির সান্নিধ্য পেতে খাগড়াছড়িতে পর্যটকদের ভীর

প্রতিদিনের চিত্র ডেস্ক

প্রকাশিত: ২১ জানুয়ারি ২০২০  

ছবি - সংগৃহীত

ছবি - সংগৃহীত

পাহাড়, ঝর্ণা আর লেকের সৌর্ন্দয্য দেখতে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এবার শীতের শুরুতেই খাগড়াছড়িতে রেকর্ড পরিমাণ পর্যটক এসেছেন। তবে পর্যটন কেন্দ্রে অবকাঠামো গড়ে না ওঠা, নিরাপত্তাহীনতা এবং প্রশিক্ষিত গাইডের অভাবে প্রত্যাশিত লক্ষ্য অর্জিত হচ্ছে না।

খাগড়াছড়ির পর্যটনের উন্নয়নে নানামুখী উদ্যোগের কথা জানায় স্থানীয় প্রশাসন।

পাহাড় ,ঝর্ণা ও কৃত্রিম লেক নিয়ে বৈচিত্রময় জেলা খাগড়াছড়ি। এখানকার রিছাং ঝর্ণা, তৈদুছড়া ঝরণা, হাজাছড়া ঝর্ণা, আলুটিলার রহস্যময় সুড়ঙ্গ, জেলা পরিষদ পার্ক, মায়াবিনী লেক, রামগড় কৃত্রিম লেক ও রামগড় ঝুলন্ত সেতুসহ প্রতিটি পর্যটন স্পট এখন পর্যটকদের উপচে পড়া ভিড়।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, অনুন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থা, পর্যটনকেন্দ্রগুলোতে নিরাপত্তাহীনতা, দুর্গম এলাকায় প্রাকৃতিক ঝর্ণায় যাওয়ার জন্য পর্যাপ্ত গাইড-সুবিধা না থাকায় জেলায় পর্যটনের বিকাশ হচ্ছে না।

এক পর্যটক বলেন, প্রাকৃতিক সৌন্দর্য দেখতে এসেছি। আগেও এসেছিলাম। পাহাড় আমাকে সবসময় টানে।

পর্যটন মোটেলসহ মান সম্মত অনেক হোটেল ও রেস্টুরেন্ট থাকলেও তা পর্যটকদের তুলনায় যথেষ্ট নয়। সাজেকে নির্দিষ্ট ভাড়ায় পর্যটকদের যাতায়াতে ভোগান্তি কমাতে কাজ করছে স্থানীয় জীপ সমিতি।


তারা বলেন, বুকিং ভালো হচ্ছে। নির্ধারিত ভাড়াই নেয়া হচ্ছে।

প্রতি বছর পর্যটকদের সংখ্যা বাড়লেও সুযোগ-সুবিধা বাড়েনি তেমন একটা। তবে জেলা প্রশাসন দ্রুত পদক্ষেপ নেয়ার আশ্বাস দিয়েছে।

জেলার পর্যটন উন্নয়নে সরকারের নানামুখী উদ্যোগের কথা জানালেন পার্বত্য পরিষদের চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী।

তিনি বলেন, পর্যটকদের জন্য ক্যাবল কারের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

ঢাকা থেকে সড়ক পথে খাগড়াছড়ির দূরত্ব ৩১৬ কিলোমিটার। বাসে যেতে ৭ থেকে ৮ ঘণ্টা লাগে।