ঢাকা, রোববার   ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১,   আশ্বিন ১০ ১৪২৮

ব্রেকিং:
আজ থেকে বিমানবন্দরে করোনা টেস্ট রোহিঙ্গাদের ফেরানোর পরিবেশ তৈরি করতে হবে মিয়ানমারকে দৈনিক প্রতিদিনের চিত্র পত্রিকার `প্রিন্ট এবং অনলাইন ভার্সন`-এ প্রতিনিধি নিয়োগ পেতে আর্থিক লেনদেন না করার জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের অনুরোধ করা হল। নিয়োগ পেতে কেউ অসদুপায়ে আর্থিক লেন-দেন করে থাকলে তার জন্য কর্তৃপক্ষ (প্রকাশক ও সম্পাদক) দায়ী থাকবেনা।
সর্বশেষ:
জাতিসংঘের সামনে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির সমাবেশ নিষিদ্ধ ৮ খেলোয়াড় নিয়ে দল ঘোষণা ব্রাজিলের মমেক ও রামেকে আরও ১১ জনের মৃত্যু বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত ২৩ কোটি ছাড়াল

বড়লেখায় চা শ্রমিকদের মাঝে চেক বিতরন করেন এমপি শাহাবুদ্দিন

মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১  

ছবি- প্রতিদিনের চিত্র।

ছবি- প্রতিদিনের চিত্র।

 

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী আলহাজ্ব মো.শাহাব উদ্দিন এমপি বলেছেন, ‘প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা চা শ্রমিকদের অনেক ভালোবাসেন। চা শ্রমিকরাও মনে প্রাণে প্রধানমন্ত্রীকে ভালোবাসেন। শেখ হাসিনার সরকার চা শ্রমিকদের জীবনমানের উন্নয়নের লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। সেই লক্ষ্যে পাকা ঘর তৈরি করে দেওয়া হচ্ছে। চা শ্রমিক সন্তানদের শিক্ষিত করে গড়ে তুলতে বাগান এলাকায় স্কুল নির্মাণ ও রাস্তা তৈরি করে দেওয়া হয়েছে। ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। আর্থিক অনুদান দেওয়া হচ্ছে। এই অনুদান চা শ্রমিকদের জীবনমান উন্নয়নের জন্য।’

 

রোজ রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

 

মন্ত্রী সেখানে চা শ্রমিকদের জীবনমান উন্নয়ন কর্মসূচীর আওতায় ১ হাজার ৮৭৯ জন শ্রমিকের মধ্যে ৫ হাজার টাকা করে এককালীন আর্থিক অনুদানের চেক বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। সমাজসেবা অধিদপ্তরের অর্থায়নে ১ হাজার ৮৭৯ জন শ্রমিকের মাঝে মোট ৯৩ লাখ ৯৫ হাজার টাকার চেক বিতরণ করা হচ্ছে। এ ছাড়া চা শ্রমিকদের জীবনমান উন্নয়নে টেকসই আবাসন নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় নব নির্মিত ঘরের চাবি ১৭টি উপকারভোগী চা শ্রমিক পরিবারের হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে তুলে দেন। সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের জাতীয় সমাজকল্যাণ পরিষদের অর্থায়নে ১৭টি ঘর নির্মাণে ব্যয় হয়েছে ৬৮ লাখ টাকা। প্রতিটি ঘর নির্মাণে ব্যয় হয় ৪ লাখ টাকা। উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয় অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।


মন্ত্রী বলেন, ‘সরকার এই দেশকে ইউরোপ, আমেরিকার মতো উন্নত করতে চায়। উন্নত দেশ করতে হলে যারা গরীব, অসহায় ও যারা একটু পিছনে পড়ে আছে তাদেরকে টেনে তুলে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। তাদের অবস্থার পরিবর্তন করতে পারলে দেশ ইউরোপ, আমেরিকার মতো হয়ে যাবে। সেই কারণে সরকার গরীব মানুষকে সাহায্য করছে।’

 

পরিবেশমন্ত্রী আরও বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু জন্মগ্রহণ না করলে আরও ১০০ বছরেও এই স্বাধীন বাংলাদেশ আমরা পেতাম না। স্বাধীনতার স্বাদ আমরা পেতাম না। লাল-সবুজ পতাকা পেতাম না। কিন্তু এই স্বাধীন দেশ যখন জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছে, মান মর্যাদা বৃদ্ধি পাচ্ছে, অভাব-অনটন দূর হচ্ছে তখনই ষড়যন্ত্র শুরু করে। এই ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে আমাদেরকে সজাগ থাকতে হবে। আমরা এই বাংলাদেশকে যড়যন্ত্রকারীদের হাতে তুলে দিতে চাই না। আমরা এই বাংলাদেশকে তালেবান রাষ্ট্র, জঙ্গি রাষ্ট্র বানাতে চাই না। সে জন্য সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। ঐক্যবদ্ধ হয়ে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে, সেই অগ্রযাত্রাকে আমারা আরও এগিয়ে নিয়ে যাব।’

 

আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন বড়লেখা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) খন্দকার মুদাচ্ছির বিন আলী। বড়লেখা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ তাজ উদ্দিনের উপস্থাপনায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম সুন্দর, উত্তর শাহবাজপুর ইউপি পরিষদের চেয়ারম্যান আহমদ জুবায়ের লিটন, চা শ্রমিকদের পক্ষ থেকে ঘর পাওয়া মিলন নায়েক, অনুদান পাওয়া রাজেন্দ্র ভৌমিক, সবিতা নায়েক প্রমুখ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বড়লেখা উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলাম।

 

অনুষ্ঠানের শুরুতে কোরআন তিলাওয়াত করেন মাওলানা জাকির হোসেন ও গীতা পাঠ করেন বড়লেখা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এপিপি গোপাল দত্ত।
সভা শেষে উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান তাজ উদ্দিনের ব্যক্তিগত উদ্যোগে নেওয়া ৫০ হাজার বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির অংশ হিসেবে পরিবেশমন্ত্রী ২টি কাঠাল, ২টি আম ও ১টি জাম গাছের চারা রোপণ করেন। পরে অনুষ্ঠানে উপস্থিত লোকজনের মাঝে ৫০০ ফলজ ও ঔষুধি গাছের চারা বিতরণ করেন ভাইস চেয়ারম্যান।

 

এরআগে সকাল সাড়ে ১১টায় মন্ত্রী নারী শিক্ষা একাডেমি ডিগ্রি কলেজের একাডেমিক ভবন নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। নির্বাচিত বেসরকারি বিদ্যালয় সমূহের উন্নয়নের (রাজস্ব উন্নয়ন প্রকল্প) আওতায় চতুর্থ তলা ভিত বিশিষ্ট ভবনের প্রথম তলা নির্মাণে ব্যয় হবে ১ কোটি ৩ লাখ টাকা। শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর কাজটি বাস্তবায়ন করবে।

এই বিভাগের আরো খবর