Berger Paint

ঢাকা, শুক্রবার   ২২ জানুয়ারি ২০২১,   মাঘ ৯ ১৪২৭

ব্রেকিং:
ফেব্রুয়ারিতে খুলতে পারে শিক্ষাঙ্গন, ৪ তারিখের মধ্যে প্রস্তুতি নেওয়ার নির্দেশ
সর্বশেষ:
বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ২১ লাখ ছাড়াল করোনা মোকাবেলায় ১০ নির্বাহী আদেশে সই বাইডেনের পাথরখনির বিস্ফোরণে তছনছ ভারতের শিবমোগা, নিহত অন্তত ৮

বিক্রি হচ্ছে করোনা নেগেটিভের সনদ!

প্রতিদিনের চিত্র ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৫ জুন ২০২০  

ছবি- প্রতিদিনের চিত্র

ছবি- প্রতিদিনের চিত্র


ঢাকার অধিকাংশ করোনাভাইরাস পরীক্ষা কেন্দ্রেসমূহে সক্রিয় হয়ে উঠেছে দালাল চক্র। করোনা নেগেটিভের নকল সনদ বিক্রি করছে পাঁচ থেকে সাত হাজার টাকায়। ভুয়া সনদ বিক্রেতা একটি চক্রের চার সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব এবং আটককৃতদের থেকে ভুয়া সনদপত্র ও সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে।

নতুন চাকরীতে যোগদান কিংবা বিদেশগামীদের জন্য করোনা নেগেটিভ সনদপত্র বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। চক্রটি সে সকল লোকদের টার্গেট করে মুগদা জেনারেল হাসপাতাল কেন্দ্রীক তৎপরতা চালিয়ে আসছিল। বিশেষ করে, তারা হাসপাতালে স্যাম্পল দিতে আসা লোকজনের কাছে বিক্রি করছে এই নকল সনদপত্র। আর এজন্য নেওয়া হত ৫ থেকে ৭ হাজার টাকা।

এ বিষয়টি সাধারণ মানুষের মুখে মুখে প্রচার হতে থাকায়, গোপন তথ্যের ভিত্তিতে মুগদা জেনারেল হাসপাতালে অভিযান চালায় র‌্যাব। অভিযানে মোট ৪ জনকে আটক করা হয়।

বিভিন্ন সময়ে যারা মুগদা হাসপাতালে স্যাম্পল দিতে এসেছে তাদেরকে প্ররোচিত করে এখান থেকে ভুয়া সার্ফিকিকেট দেয়া হয় বলে জানান লে. কর্নেল রকিবুল হাসান। তবে, এ বিষয়ে সরকারী কোন ব্যাক্তির থেকে কিছু জানা যায়নি।
 
র‌্যাব দাবি করছে, এ পর্যন্ত দালাল চক্রটি ১৫০-২০০টি ভুয়া সনদ বিক্রি করেছে। র‌্যাব ধারণা করছে রাজধানীজুড়ে যে কয়টি করোনা টেস্ট কেন্দ্র রয়েছে তার সবগুলোতে সক্রিয় এ চক্রটি।

দেশ থেকে যারা ভুয়া করোনা নেগেটিভ রিপোর্ট নিয়ে জাপান, দ.কোরিয়া, মালয়েশিয়া গেছে তাদের সেখানে করোনা পজিটিভ হয়েছে। এতে দেশের ভাবমূর্তি বিনষ্ট হয়েছে।

র‌্যাব জানিয়েছে, এসব ভুয়া সনদপত্রে বিভিন্ন হাসপতালের নাম ব্যবহার করা হলেও এখনো পর্যন্ত কোন হাসপাতালের সংশ্লিষ্টতার তথ্য পাওয়া যায়নি।

এই বিভাগের আরো খবর