Berger Paint

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৩ আগস্ট ২০২০,   শ্রাবণ ২৯ ১৪২৭

ব্রেকিং:
সিনহা হত্যা: টেকনাফে ১৬ আগস্ট গণশুনানি বন্যা পরিস্থিতি ফের অবনতির শঙ্কা বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ৭ লাখ ৪৮ হাজারেরও বেশি রাজধানীতে করোনায় আক্রান্তের ৮০ শতাংশই উপসর্গহীন
সর্বশেষ:
র‌্যাবের প্রাথমিক অনুসন্ধান: সিনহা হত্যাকাণ্ড পরিকল্পিত করোনায় আক্রান্ত সাও পাওলোর গভর্নর সিটিজেন/গ্রিন কার্ড ধারীদের ঠেকাতে আদেশ জারির কথা ভাবছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ভারতের প্রতিভাবান ক্রিকেটার `করণ তিওয়ারী`র আত্মহত্যা

ভারতের কাছে লড়াই করেই হারলো বাংলার মেয়েরা

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

পঠিত: ৭৭৩
ছবি - সংগৃহীত

ছবি - সংগৃহীত

বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে লড়াই করেই হারলো বাংলার মেয়েরা। ১৪৩ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৮ উইকেটে ১২৪ রান করে ১৮ রানে হারে তারা। বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৫ রান করেন নিগার সুলতানা আর ৩০ রান আসে খুরশিদা খাতুনের ব্যাট থেকে।

অস্ট্রেলিয়ার পার্থে ভারতের দেয়া ১৪৩ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই শামীমা সুলতানার উইকেট হারিয়ে বিপর্যয়ে পড়ে বাংলাদেশ। দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে সানজিদা ইসলামকে সঙ্গে নিয়ে ৩৯ রানের জুটি গড়েন মুরশিদা খাতুন। ২৬ বলে ৩০ রানের এক অসাধারণ ইনিংস খেলেন উদ্বোধনী জুটিতে নামা মুরশিদা। তার এই ইনিংসে ছিল চারটি চারের মার।

দলীয় ১১.৩ ওভারের মাথায় ৬৬ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে আবারও শঙ্কায় পড়ে সালমা খাতুনের দল। মাঝে ফাহিমা খাতুনের সাথে নিগার সুলতানার ২৮ রানের জুটি আবারও দলকে জয়ের স্বপ্ন দেখাতে থাকে। কিন্তু ২৬ বলে ৩৫ রান করে নিগার সুলতানা ফিরে গেলে জাহানারা আলম ও রুমানা আহমেদের ঝড়ো ইনিংস দর্শকদের কিছুটা আনন্দ দিয়েছে শুধু।

নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ দাঁড়ায় ১২৪ রান।ফলে ১৮ রানের হার নিয়েই মাঠে ছাড়তে হয় সালমা খাতুনের দলকে। ১৭ বলে ৩৯ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে ম্যাচ সেরার পুরস্কার জেতেন ভারতের শেফালি বার্মা।

এরআগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ১৬ রানের মাথায় ব্যক্তিগত ২ রান করেই ফেরেন ভারতের তানিয়া বাটিয়া। পরে জেমিমা রদ্রিগেসকে সঙ্গে নিয়ে ৩৭ রানের এক ঝড়ো ইনিংস উপহার দেন বার্মা। শেফালি-রদ্রিগেসের পরে ধস নামতে থাকে ভারত শিবিরে। কিন্তু সাত নম্বরে নামা কৃষ্ণামূর্তির ১১ বলে ২০ রানের ইনিংসের সুবাধে ১৪৩ রানের বড় লক্ষ্যই দেয় ভারত। বল হাতে পান্না ঘোষ ও সালমা খাতুন নেন দুটি করে উইকেট।