Berger Paint

ঢাকা, রোববার   ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০,   আশ্বিন ১২ ১৪২৭

ব্রেকিং:
টিকেট দেড়শ’, অপেক্ষায় কয়েক হাজার সৌদি যাত্রী! প্রধানমন্ত্রী পদে আর প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন না মাহাথির ভূমধ্যসাগরে উদ্ধার হওয়া ২২ জনের ৮ জন বাংলাদেশি পাকিস্তানে যাত্রীবাহী বাসে আগুন, নিহত ১৩ করোনায় মারা গেলেন চবির সাবেক উপাচার্য নূরুদ্দীন চৌধুরী
সর্বশেষ:
৫ অক্টোবর ঢাকায় আসছেন ভারতের নতুন হাইকমিশনার বিক্রম দোরাইস্বামী পার্বতীপুরে নিজ ঘরে ঘুমন্ত অবস্থায় দেয়ালচাপায় ২ সন্তানসহ স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার অবনতি, খেতে-হাঁটতে পারছেন না: ব্যারিস্টার খোকন যুক্তরাষ্ট্রে আগাম ভোটে আগ্রহ বেড়েছে ৮৭ শতাংশ মানুষের

মাছের কাঁটা গলায় বিঁধলে করনীয়

প্রকাশিত: ২ মার্চ ২০২০  

পঠিত: ২৫৯
ছবি-সংগৃহীত

ছবি-সংগৃহীত

গলায় মাছের কাঁটা বিঁধলে অনেকেই বিভিন্ন ধরনের চিকিৎসা নেন। অনেক সময় ভুল চিকিৎসায় হিতে বিপরীত হয়। এক সময় দেখা যেত কেউ কেউ বিড়ালের পা ধুয়ে সেই পানি ভুক্তভোগী ব্যক্তিকে খাওয়ানো হতো। বিড়ালের কাছে প্রার্থনা করতেন যেন গলায় কাঁটা নেমে যায়।

তবে কিছু উপায় জানা থাকলে আপনি অতি অল্প সময়ে দূর করতে পারবেন এই কাঁটা। জেনে নিন উপায়-

ভাত

গলায় কাঁটা আটকে গেলে ভাত চটকে নরম করে নিন। এবার ভাতের ছোট ছোট বল বানিয়ে না চিবিয়ে গিলে ফেলুন। এতে কাঁটা গলার থেকে নেমে যাবে।

পাউরুটি

হাতের কাছে ভাত না থাকলে আপনি পাউরুটি খেতে পারেন। শুধুমাত্র পাউরুটি মুখে দিয়ে হালকা চিবিয়ে গিলে ফেলুন এবং পানি খেয়ে নিন। এতে গলা পরিষ্কার হয়ে যাবে।

লবণ পানি

পানির মধ্যে সামান্য লবণ মিশিয়ে খেয়ে ফেলুন। লবণ কাঁটা নরম করতে সাহায্য করে।

কলা

গলার কাঁটা দূর করার জন্য কলা অনেক কার্যকরী। একটি বড় কলা খুব বেশি না চিবিয়ে গিলে ফেলুন। কলা পিচ্ছিল হবার কারণে সহজে কাঁটা গলা থেকে নামিয়ে ফেলে এবং টেরও পাওয়া যায় না।

লেবু

এক টুকরা লেবু নিন এবং তাতে সামান্য লবণ দিয়ে চুষে চুষে খেয়ে ফেলুন। এতে কাঁটা নরম হয়ে যাবে।

অলিভ অয়েল

গলায় কাঁটা বিঁধলে দেরি না করে অল্প অলিভ অয়েল খেয়ে নিন। অলিভ অয়েল অন্য তেলের তুলনায় বেশি পিচ্ছিল। তাই গলা থেকে কাঁটা পিছলে নেমে যাবে সহজেই।

ভিনেগার

পানির সঙ্গে ভিনেগার মিশিয়ে নিন। ভিনেগার গলায় বিঁধে থাকা মাছের কাঁটাকে নরম করার ক্ষমতা রাখে। তাই পানির সঙ্গে ভিনেগার মিশিয়ে খেলে কাঁটা সহজেই নেমে যায়।

তারপরও যদি গলার কাঁটা না নামে তাহলে ডাক্তারের পরামর্শ নিন।