Berger Paint

ঢাকা, সোমবার   ২৫ মে ২০২০,   জ্যৈষ্ঠ ১১ ১৪২৭

ব্রেকিং:
বিশ্বে করোনায় মৃত ৩ লাখ ৪১ হাজার সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী
সর্বশেষ:
চাঁদপুরের ৪০ গ্রামে আজ ঈদ নিম্ন আদালতের ২ বিচারকের করোনা শনাক্ত : আইনমন্ত্রী সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যে ঈদ আজ করোনায় সশস্ত্র বাহিনীর ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে

মালয়েশিয়ায় ফের ৩য় বারের মত বাড়লো লকডাউন

আশরাফুল মামুন, মালয়েশিয়া প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১০ এপ্রিল ২০২০  

পঠিত: ৩২৯৫
মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী তান সেরি মহিউদ্দিন ইয়াসিন। ছবি- প্রতিদিনের চিত্র

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী তান সেরি মহিউদ্দিন ইয়াসিন। ছবি- প্রতিদিনের চিত্র

মালয়েশিয়ায় করোনা (covid-19) পরিস্থিতি মোকাবেলায় ১৮ই মার্চ থেকে ১৪ ই এপ্রিল পর্যন্ত চলমান লকডাউন আবার ও বাড়িয়ে ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত বর্ধিত করা হয়েছে।

মালয়েশিয়ায় করোনায় ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধির পাশাপাশি সুস্থ হয়ে উঠেছেন উল্লেখযোগ্য হারে। তাই আশার আলো দেখাচ্ছে মালয়েশিয়ার স্বাস্থ্য বিভাগ। কিন্তু পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে আজ ১০ এপ্রিল স্থানীয় সময় বিকেল চারটায় জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণে ফের তৃতীয়বারের মতো আগামী ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউন মুভমেন্ট কন্ট্রোল অডার (এমসিও) ঘোষণা করেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী তান সেরি মহিউদ্দিন ইয়াসিন।

করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধে গত মাসের ১৮ মার্চ থেকে শুরু হয় লকডাউন মুভমেন্ট কন্ট্রোল অডার (এমসিও) শেষ হওয়ার কথা ছিল ৩০ মার্চ। কিন্তু করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে দ্বিতীয় দফায় চলতি মাসের ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত ঘোষণা করেন সেদেশের প্রধানমন্ত্রী।

পরিস্থিতি মোকাবেলায় সেদেশের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে তৃতীয় দফায় লকডাউন (মুভমেন্ট কন্ট্রোল অডার) সুপারিশ করা হয় সেদেশের প্রধানমন্ত্রী বরাবর। এছাড়াও সার্বিক দিক বিবেচনা করে লকডাউন বাড়িয়ে চলতি মাসের ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী তান সেরি মহিউদ্দিন ইয়াসিন। এসময় তিনি বলেন, আমরা অবশ্যই ঘরে অবস্থান করবো।

এদিকে মালয়েশিয়ায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের ৩৩ শতাংশের বেশি মানুষ সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন এবং কমেছে মৃত্যুর হার। সেই সাথে আক্রান্তের সংখ্যা কমছে ধীরে ধীরে। সেদেশের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, মৃত ব্যক্তিদের অধিকাংশই ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপে আক্রান্ত ছিলো যাদের বয়স ৬০ থেকে ৬৫ বছরের বেশি। আর এই কারণে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হলেও চিকিৎসা এখন আর আতংক নেই আগের মতো। যে কারণে স্বস্তি ফিরতে শুরু করেছে বাংলাদেশিসহ সে দেশের নাগরিকদের মাঝে।

আজ শুক্রবার প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত দেশটিতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ৪২২৮ জন, আক্রান্তের মধ্যে ১২ জন বাংলাদেশী আছেন, সুস্থ হয়েছেন ১৬০৮ জন, মারা গেছেন ৬৮ জন ।

 

এই বিভাগের আরো খবর