ঢাকা, শনিবার   ১৬ অক্টোবর ২০২১,   কার্তিক ১ ১৪২৮

ব্রেকিং:
মিয়ানমার থেকে এলো ৮ হাজার টন পেঁয়াজ সরাসরি কৃষকের হাতে ভর্তুকির টাকা পৌঁছানোর ব্যবস্থা করেছি: প্রধানমন্ত্রী দৈনিক প্রতিদিনের চিত্র পত্রিকার `প্রিন্ট এবং অনলাইন ভার্সন`-এ প্রতিনিধি নিয়োগ পেতে আর্থিক লেনদেন না করার জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের অনুরোধ করা হল। নিয়োগ পেতে কেউ অসদুপায়ে আর্থিক লেন-দেন করে থাকলে তার জন্য কর্তৃপক্ষ (প্রকাশক ও সম্পাদক) দায়ী থাকবেনা।
সর্বশেষ:
যুক্তরাষ্ট্রের ফুটবল মাঠে গোলাগুলি, আহত ৪ বৈশ্বিক আইনের শাসনে এক ধাপ এগিয়েছে বাংলাদেশ ভারতীয় দলের নতুন কোচ রাহুল দ্রাবিড়? বিজ্ঞাপন প্রতিনিধি নিয়োগ ‌`লো-কার্বন`-ই হবে আগামীতে সবুজ-বান্ধব ফাইভজি নেটওয়ার্ক

মালয়েশিয়া লকডাউনে ২৭৯ বাংলাদেশী অবৈধ অভিবাসীসহ আটক ৫৯৫১

আশরাফুল মামুন, মালয়েশিয়া প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২২ জুলাই ২০২০  

ছবি- প্রতিদিনের চিত্র

ছবি- প্রতিদিনের চিত্র


মালয়েশিয়ায় কোভিড-১৯ মহামারী প্রাদূর্ভাব নিয়ন্ত্রণে ১৮ ই মার্চ থেকে শুরু হওয়া মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার (এমসিও) এবং রিকভারি মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার(আরএমসিও) নিয়ন্ত্রণ আদেশ লকডাউন চলাকালীন সময়ে মোট ৫৯৫১ অবৈধ অভিবাসী কে গ্রেফতার করেছে দেশটির ইমিগ্রেশন বিভাগ। এর মধ্যে ২৭৯ জন বাংলাদেশী অবৈধ অভিবাসী রয়েছেন। দেশটির ইমিগ্রেশন পুলিশ ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর যৌথভাবে ৪৩০১ টি অভিযান পরিচালনা করে এসময়   ৬৮,০৩৩ জন অভিবাসী কে চেক করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২১ জুলাই)  মালয়েশিয়ার জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিল এ বিষয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ এই তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃত সকল কে দেশটির বিভিন্ন ইমিগ্রেশন ডিটেনশন ক্যাম্পে আটক রাখা হয়েছে তাদের নিজ নিজ দেশে ফেরত পাঠানোর অপেক্ষায় ।

আটককৃতদের মধ্যে বাংলাদেশী ২৭৯ নাগরিক, ইন্দোনেশিয়ার ৪১১০ জন, থাইল্যান্ড ৬৩৭ জন, পাকিস্তান ৩৮০ জন, চায়না ৭৩ জন, ভারত২৬ জন,শ্রীলঙ্কা  ১১ জন এবং বাকি ৪৪ জন বিভিন্ন দেশের নাগরিক ।

প্রতিবেদনে আরো বিস্তারিত বলা হয়েছে, ১৮ ই মার্চ  থেকে  পহেলা জুলাই পর্যন্ত লকডাউন চলাকালীন সময়ে উপরোক্ত অবৈধ অভিবাসীদের আটক করা হয়েছে এবং তাদের প্রত্যেক কে আটকের আদালতে সোপর্দ করার পর জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। তারা নিদিষ্ট সময় সাজা ভোগ করার শেষে  নিজ নিজ ফেরত  পাঠানো হবে।

মালয়েশিয়ার ইমিগ্রেশন বিভাগ সম্প্রতি এক বিবৃতি তে জানিয়েছে যে অবৈধ অভিবাসী ও বিভিন্ন কারণে আটক ডিটেনশন ক্যাম্পেও  অভিবাসীরা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। পরে তাদের সরকারি ব্যাবস্থাপনায় চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য যে,  দেশটিতে এখন করোনা ভাইরাস সংক্রমন পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আছে।  সরকার তার সময়োপযোগী  সঠিক ব্যাবস্থাপনার কারনে জনগণের কাছে প্রশংসিত হয়েছে।  এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট ১২১ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে এবং গত কয়েক সপ্তাহ ধরে দেশটিতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে কোন রোগী মারা যাননি।

এখন পর্যন্ত মালয়েশিয়া করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে কোন বাংলাদেশী প্রবাসী মারা যাওয়ার খবর পাওয়া যায়নি।

 

এই বিভাগের আরো খবর