ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১২ ডিসেম্বর ২০১৯,   অগ্রাহায়ণ ২৭ ১৪২৬

ব্রেকিং:
কেরানীগঞ্জে প্লাস্টিক কারখানায় আগুনে নিহত ৯
সর্বশেষ:
আদালতকে ভয় দেখাচ্ছে বিএনপি- কাদের আজ ব্রিটেনের আগাম জাতীয় নির্বাচন সুন্দরবন পরিদর্শনে জাতিসংঘের প্রতিনিধি দল আজ দিল্লী যাচ্ছেন পররাষ্ট্র মন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন আজ খালেদা জিয়ার জামিন শুনানি আজ আইসিজেতে শুনানির শেষ দিন ফকিরাপুল থেকে ২ জনের মরদেহ উদ্ধার না ফেরার দেশে চলে গেলেন মেরি ফ্রেড্রিকসন মওলানা ভাসানীর জন্মদিন আজ আজ ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস

মেয়েদের চুলের সাজ

categorydesk

প্রকাশিত: ২ অক্টোবর ২০১৯   আপডেট: ২ অক্টোবর ২০১৯

পঠিত: ৭১

 

বর্তমানে মেয়েদের  চুলের ডিজাইন করা একটা ফ্যাশন। এই চুলের জন্য মেয়েরা অনেক টাকা খরচ করে। মেয়েরা চুলকে বিভিন্ন কাটিং দিয়ে তাদের চুলের বিভিন্ন ডিজাইন তৈরী করে। ব্যক্তিত্বের ওপর নির্ভর করেই মানুষ ঠিক করে চুলের কাটিং কেমন হবে। বেশির ভাগ মেয়েই তাদের চুল কাটা নিয়ে সন্তুষ্ট থাকে না।তারা ভাবে যে এই ভাবে না অন্য ভাবে কাটলে তাদের চুলের ডিজাইন আরো ভাল হবে। তাদের চেহারার সাথে মিলিয়ে হেয়ার কাট দিয়ে তাদের চুলকে বিভিন্ন ডিজাইন করে। নিচে মেয়েদের চেহারার সাথে মিলিয়ে কিছু চুলের কাটিং করে তাদের ডিজাইন কেমন হবে তা দেখে আসি-
চুলের ধরণ অনুযায়ী মেয়েদের চুলের ডিজাইন

মোটা চুল-

মেয়েদের চুল যদি মোটা হয় তবে যেকোন ডিজাইন ভাল মানাবে। হে তবে যে মেয়েদের মুখের আকৃতি গোলাকার বা ডিম্বাকৃতির হয়ে থাকে তাদের জন্য পিছনে লং লেয়ার দিয়ে সামনে ব্যাঙ্গস করতে পারেন।
কোঁকড়া চুল

আজকাল দেখা যায় যে কোঁকড়া চুল একটি ফ্যাসনেবল হয়ে উঠেছে। কোঁকড়া চুলকে তাড়াতাড়ি ফ্যাসনেবল করা য়ায়। তবে কোঁকড়া চুলের তুলনায় কোঁকড়া চুল খুব তাড়াতাড়ি এলোমেলে হয়ে যায়।
পাতলা চুল

পাতলা চুল এর একটি সমস্যা হল সব ধরনের ডিজাইন এই চুলে মানায় না। পাতলা চুলের জন্য ব্যাঙ্গস করে ভলিউম লেয়ার কাট বেছে নিতে পারেন। সেই চুল কাধ পর্যন্ত থাকতে পারে এবং ছোট চুলেই আপনার সৌন্দর্যকে ফুটিয়ে তুলবে।
ঢেউ খেলানো চুল

যে মেয়েদের চুল ঢেউ খেলানো কয়েকটি কাট হচ্ছে যেমন, ইমো, স্টেপ লেয়ার কাট অনেক বেশি চলছে। তা সোজা ও এই চুল সব ধরেনের স্টাইলের জন্য মানানসই।

সোজা চুল-

সোজা চুলের জন্য নানা ধরণের মেয়েদের চুলের ডিজাইন রয়েছে তবে চেহারার সাথে মানানসই কাট দেওয়াই ভাল। সোজা চুলে লম্বা চুল দেখতে সুন্দর দেখায় বেশি। হে তবে সামনের ছোট রেখে পিছনে লম্বা রাখুন। তাহলে আপনার চুলের ডিজাইন ভাল হবে এবং আপনাকে অনেক সুন্দর মানাবে।
মেয়েদের চুলের যত্ন

চুলের যত্ন মেয়েদের একটি ফ্যাশন। মেয়েদের চুল লম্বা হবে এটাই স্বাভাবিক। কন্তু এই লম্বা চুল অনেকেই ধরে রাখতে পারে না। নানা রকম সমস্যার কারণে তাদের এই সুন্দর চুল যরে যায়। মেয়েরা দিনে দুই থেকে তিন বার তাদের চুল নিয়ে ভাবে যে, তারা তাদের চুলকে কিভাবে যত্ন নিলে চুল লম্বা ও মজবুত হবে। এই জন্য তারা অনেক ধরণের চুলের প্রসাধনী ব্যবহার করে। তাদের চুলকে ঘন ও মজবুত করার জন্য। হে বাজারে চুলের যত্ন নেওয়ার জন্য অনেক ধরণের হেয়ার প্রোডাক্ট রয়েছে কিন্তু সকল হেয়ার প্রোডাক্ট আসলেই সকল চুলের জন্য উপকার হয় না। চলুন নিচে দেখে আসি মেয়েদের চুলের যত্ন নেওয়ার জন্য কি কি ব্যবহার করা যায়।
মেয়েদের চুল লম্বা করার কিছু ঘরোয়া টিপস

মেয়েদের চুলের যত্ন করার জন্য বেশ কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি রয়েছে। যা ব্যবহার করলে মেয়েদের চুল জলমলে কালো হয় এবং লম্বা হয়।চুলের যত্নে ডিম, মেহেদী, মধু, পেয়াজ, লেবুর রস, ডিমের কুসুম, মেথি, কলা উত্যাদি ব্যবহার করা যায়। যা আপনার সুন্দর চুলকে আরো সুন্দর ও জ্বলমলে উজ্জল করে।
মেয়েদের চুলের যত্নে বিভিন্ন তেল

অলিভ অয়েল-

চুলের জন্য সব চেয়ে সেরা কিছু তেলের মধ্যে সেরা প্রাকুতিক অয়েল হল অলিভ অয়েল। অলিভ অয়েল ব্যবহারে বেশ খ্যাতি রয়েছে।শ্যাম্পু ব্যবহারে পরে কয়েক ফোটা অলিভ অয়েল হাতের মধ্যে নিয়ে ভালভবাবে ঘসে তার পর মাথায় ব্যবহার করে ফেলুন। তারপর চুলে কন্ডিমণ ব্যবহার করুন। এই ভাবে দুই তিন ঘন্টা চুলে তেল লাগিয়ে রেখে আবার শ্যম্পু করুন। আর দেখুন আপনার চুল আরো সুন্দর ও উজ্জল হবে।

ক্যাস্টর অয়েল-

ক্যাস্টর অয়েল এটি ভিটামিন ই সমৃদ্ধ যা চুলকে মজবুত ও উজ্জল কর। তাছাড়া এই তেল ব্যবহারে মাথায় নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে। এবং মাথার কেশ ঘন হয়।
প্যারাসুট তেল

বিভিন্ন তেলের কথা জানা থাকলেও প্যারাসুট নারিকেরল তেলে রয়েছে বিস্ময়কর উপকারিতা। এই তেল ব্যবহার করলে মাথার চুল ঘন ও জ্বলমলে উজ্জল কালো হয়। সকল তেলের চেয়ে প্যারাসুট তেল অধিক ব্যবহার হয়ে থাকে। কারণ এই তেল ১০০% ভাল ও উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহার করে এই তেল তৈরী করা হয়।

কুমারিকা তেল-

চুল পড়েনা এমন কোন লোখ নাই। সকল লোকের চুল পড়ার সমস্যা আছে। বিশেষজ্ঞরা বলেছেন যে, দিনে ৫০-১০০টা চুল পড়া স্বাভাবিক। আর যদি তার চেয়ে বেশি চুল পরে তাহলে আপনি আপনার চুলের বাড়তি যত্ন নিতে পারেন। তাই চুলকে যত্ন নেওয়ার জন্য কুমারিকা হারবাল হেয়ার ফল কন্টোল অয়েল ব্যবহার করে আপনার বেশি চুল পাড়া কমান। আপনার চুলকে কালো ও বেশি লম্বা করুন।