Berger Paint

ঢাকা, রোববার   ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০,   আশ্বিন ৫ ১৪২৭

ব্রেকিং:
করোনায় প্রতিটি মৃত্যুর দায় ট্রাম্পের, পদত্যাগ করুন: জো বাইডেন করোনায় সশস্ত্র বাহিনীর ১৫৮ জনের মৃত্যু ঢাকা থেকে ফ্লাইট চালু করছে সৌদি এয়ারলাইন্স আবরার হত্যা মামলা: আজ থেকে প্রতি কার্যদিবসে সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু
সর্বশেষ:
আজ রবিবার থেকে বিএনপির সাংগঠনিক কার্যক্রম পুনরায় শুরু ট্রাম্পকে পাঠানো চিঠিতে মিললো বিষ আফগানিস্তানে বিমান হামলায় ৪০ তালেবান নিহত

রফতানিতে যেভাবে আয় বাড়ছে সিরামিক খাতে

প্রতিদিনের চিত্র ডেস্ক

প্রকাশিত: ২৪ জানুয়ারি ২০২০  

পঠিত: ১৪৪
ছবি - সংগৃহীত

ছবি - সংগৃহীত

দেশে ৬২টি সিরামিক শিল্প কারখানা নিয়মিত উৎপাদনে আছে। অপেক্ষায় রয়েছে আরো ১২টি। এই শিল্পে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ ভাবে কর্মসংস্থান হয়েছে ৫ লাখেরও বেশি মানুষের। ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে সিরামিক খাতে রফতানি ছিল ৪ কোটি ডলার। ২০১৮-১৯ অর্থ বছরে তা বেড়ে দাঁড়ায়  ছয় কোটি ৮৯ লাখ ডলারে। চলতি অর্থ বছর শেষে এই রফতানি আয়ের লক্ষমাত্রা ধরা হয়েছে নয় কোটি ডলার।

২০১৭-১৮ঃ ৪ কোটি ডলার

২০১৮-১৯ঃ ৬ কোটি ৮৯ ডলার

২০১৯-২০ঃ ৯ কোটি ডলার (লক্ষ্যমাত্রা)

আন্তর্জাতিক বাজারে বাংলাদেশের সিরামিকস পণ্যের অংশিদারিত্ব মাত্র এক শতাংশ। তবে অভ্যন্তরীণ বাজারে প্রায় পুরোটাই দেশীয় শিল্পের দখলে। এখন লক্ষ্য বিশ্ববাজারে নিজেদের অবস্থান তৈরি করা।

ইউরোপ ও আমেরিকার বাজারে বাংলাদেশের সিরামিক পণ্যের উপর শুল্ক সুবিধা থাকায় সেসব বাজারে নতুন করে টাইলস ও স্যানিটারিওয়্যার প্রবেশের সুযোগ তৈরি হয়েছে বলে জানান বিসিএমইএ সাধারণ সম্পাদক ইরফান উদ্দিন।

এখাতে বিদ্যমান সমস্যাগুলো সমাধানে সরকার এবং উদ্যোক্তা উভয় পক্ষকে এগিয়ে আসতে হবে বলে মনে করেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

সিরামিকসের বিশ্ববাজারের বিরাট একটা অংশ চীনের দখলে; তবে চীন তথ্যপ্রযুক্তি খাতে ঝুঁকে পড়ায় এই খাতের উৎপাদন কমিয়ে দিয়েছে। যা বাংলাদেশের সামনে বিশ্ববাজারে প্রবেশের পথ সুগম করেছে বলে মনে করেন এই খাতের সাথে সংশ্লিষ্টরা।

 

এই বিভাগের আরো খবর