Berger Paint

ঢাকা, শনিবার   ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩,   মাঘ ২২ ১৪২৯

ব্রেকিং:
চট্টগ্রাম, গাজীপুর, কক্সবাজার, নারায়ানগঞ্জ, পাবনা, টাঙ্গাইল ও ময়মনসিংহ ব্যুরো / জেলা প্রতিনিধি`র জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের আবেদন পাঠানোর আহ্বান করা হচ্ছে। শিক্ষাগত যোগ্যতা- স্নাতক, অভিজ্ঞদের ক্ষেত্রে শিক্ষাগত যোগ্যতা শিথিল যোগ্য। দৈনিক প্রতিদিনের চিত্র পত্রিকার `প্রিন্ট এবং অনলাইন পোর্টাল`-এ প্রতিনিধি নিয়োগ পেতে অথবা `যেকোন বিষয়ে` আর্থিক লেনদেন না করার জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের এবং প্রতিনিধিদের অনুরোধ করা হল।
সর্বশেষ:
সৌদি আরবে এক বছরে ১৪৭ জনের মৃত্যুদণ্ড আ.লীগ জনগণকে দেওয়া ওয়াদা পূরণ করে : প্রধানমন্ত্রী বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজের খরচ বাড়ল দেড় লাখ মিয়ানমারে জরুরি অবস্থা আরও ছয় মাস বাড়ল আমি বাংলাদেশে বাবার কাছে থাকতে চাই: লায়লা রিনা

রমজানে ভোগ্যপণ্যের দাম ৩০ শতাংশ বাড়বে

প্রতিদিনের চিত্র বিডি ডেস্ক

প্রকাশিত: ২৩ জানুয়ারি ২০২৩  

ছবি- সংগৃহীত।

ছবি- সংগৃহীত।

 
লারের দাম বাড়ার কারণে আমদানি করা ভোগ্যপণ্যের দাম গত রমজানের তুলনায় এবার ৩০ শতাংশ বেশি থাকবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ ট্রেড অ্যান্ড ট্যারিফ কমিশন।

 

সোমবার (২৩ জানুয়ারি) সকালে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরে এ কথা জানিয়েছে ট্যারিফ কমিশন।

 

কমিশন জানিয়েছে, ডলারের দাম বেড়ে যাওয়া ও আন্তর্জাতিক বাজার পরিস্থিতির কারণে আমদানি করা ভোগ্যপণ্যের দাম গত রমজানের তুলনায় এবার ৩০ শতাংশ বেশি থাকবে।

 

এদিকে ভোক্তার ব্যয়ের বোঝা হালকা করতে ভোগ্যপণ্যের শুল্কহার কমানোর সুপারিশ জাতীয় রাজস্ব বোর্ডে (এনবিআর) পাঠানোর কথা জানিয়েছেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের মহাপরিচালক এ এইচ এম সফিকুজ্জামান।

 

তিনি বলেন, ‘আজকের বৈঠকে আলোচনার পরিপ্রেক্ষিতে আমাদের এখান থেকে একটি সুপারিশ বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে। সেখান থেকে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করা হবে।’

 

বৈঠকে চাহিদা-জোগানের সঠিক হিসাব রেখে বাজার তদারকির ওপর গুরুত্ব দেন আলোচকরা। এদিন ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন সরকারি কর্মকর্তারা। যেখানে বাজার কারসাজির হোতা হিসেবে বড় ব্যবসায়ীদের দায়ী করেন খুচরা ব্যবসায়ীরা।

 

অন্য দিকে আমদানিকারকরা জানালেন, এলসি (ঋণপত্র) স্বাভাবিক না হলে রমজান মাসে পণ্যের সরবরাহ আর দরদামে সমস্যা হবে।

 

তারা বলেন, আমরা যদি ঠিকমতো এলসি না পাই, তাহলে সমস্যা হতে পারে। এখন ১০০ শতাংশ মার্জিন দিয়ে সবকিছু আমদানি করার কথা বলা হচ্ছে, এটি কিন্তু ঠিক নয়।

 

এ সময় ভোক্তার অধিকার নিয়ে কাজ করা সংগঠন দ্য কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ক্যাব) বক্তব্যে উঠে আসে কীভাবে করপোরেট প্রতিষ্ঠানের মুঠোবন্দি হয়ে যাচ্ছে দেশের ভোগ্যপণ্যের বাজার।

 

ক্যাব বলেছে, এখন করপোরেট ব্যবসার নামে কোম্পানিগুলো মনোপলি তৈরি করে রেখেছে। আমদানি বাজারে মনোপলির মাধ্যমের পণ্য আটকে রেখে বাজারের অবস্থা বুঝে পণ্য ছাড় করার যে প্রবণতা, এই জায়গাটি আসলে খুব গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে।

 

এই বিভাগের আরো খবর