ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৯ নভেম্বর ২০১৯,   অগ্রাহায়ণ ৫ ১৪২৬

ব্রেকিং:
লবণের দাম বেশি চাইলেই ফোন করুন এই নম্বরে : ০২-৯৫৭৩৫০৫ (ল্যান্ড ফোন), ০১৭১৫-২২৩৯৪৯, ০১৬২৪২৭৬০১২ (সেল ফোন)।
সর্বশেষ:
দেশের পথে প্রধানমন্ত্রী শেষ টেস্ট খেলতে কলকাতার পথে টাইগাররা, মূল চ্যালেঞ্জ বোলারদের মনে করেন পেসার আল-আমিন হোসেন পেঁয়াজের পর চালের দাম বাড়ানোর ষড়যন্ত্র চলছে : নাসিম পদ্মা সেতুতে বসেছে ১৬তম স্প্যান

লামায় পুকুরে ডুবে প্রাণ গেল হস্তীশাবকের

প্রকাশিত: ৪ নভেম্বর ২০১৯  

পঠিত: ৪৬

বান্দরবানের লামা উপজেলায় পুকুরে ভাসমান অবস্থায় তিন বছর বয়সী একটি মৃত হস্তীশাবক পাওয়া গেছে।উপজেলার ইয়াংছা এলাকায় আজ সোমবার সেলিম চৌধুরীর রাবার বাগানের পুকুরে মৃত হস্তীশাবকটি পাওয়া যায়। বন বিভাগের কর্মকর্তারা মৃত হস্তীশাবকটি উদ্ধার করেছেন। হস্তীশাবকটি অসুস্থ অবস্থায় পুকুরে নেমে উঠতে না পেরে পানিতে ডুবে মারা গেছে—এমনটাই ধারণা বন বিভাগের ইয়াংছা বিট কর্মকর্তা হেদায়েত হোসেনের।

ইয়াংছার সেলিম চৌধুরীর রাবার বাগানে ২০০২ সালেও একটি মৃত হস্তীশাবক পাওয়া গিয়েছিল। তখন অ্যানথ্রাক্সে আক্রান্ত হয়ে ওই হস্তীশাবকের মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করা হয়েছিল।

সেলিম চৌধুরী জানিয়েছেন, লামা উপজেলা সদর থেকে ২০ কিলোমিটার দূরে ইয়াংছা বাজার। সেখান থেকে আধা কিলোমিটার দূরে তাঁর রাবার বাগান। সকালে বাগানে কাজ করতে গেলে শ্রমিকেরা পুকুরে মৃত হস্তীশাবকটি ভেসে থাকতে দেখেন। তিনি বন বিভাগকে ঘটনাটি জানিয়েছেন। বাগানে ১৯ থেকে ২০টি হাতির একটি দল গত রোববার রাতে এসেছিল। পুকুরের এক পাশ দিয়ে নেমে আরেক পাশ দিয়ে উঠে চলে যায়।

বন বিভাগের ইয়াংছা বিটের কর্মকর্তা হেদায়েত হোসেন বলেছেন, সংবাদ পেয়ে তাঁরা মৃত হস্তীশাবকটি উদ্ধার করতে যান। সুরতহাল করার পর প্রাণিসম্পদ বিভাগের একজন চিকিৎসক মৃত হস্তীশাবকটির ময়নাতদন্ত করেছেন।

হেদায়েত হোসেন বলেন, সুরতহালে মৃত হস্তীশাবকে সামান্য দাগ পাওয়া গেছে। প্রাণিসম্পদ বিভাগের চিকিৎসকসহ তাঁদের ধারণা, হাতির শাবকটি অসুস্থ ছিল। দুর্বল হওয়ায় পানিতে নেমে আর উঠে যেতে পারেনি। সম্ভবত মা হাতি তুলে নেওয়ার চেষ্টা করেছিল। এ জন্য শরীরে কিছু দাগ হয়েছে। মৃত হস্তীশাবকটি মাটি চাপা দেওয়া হবে।

এই বিভাগের আরো খবর