Berger Paint

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৬ জুলাই ২০২০,   আষাঢ় ৩১ ১৪২৭

ব্রেকিং:
ইতালিতে বাংলাদেশিদের আজীবন নিষিদ্ধের দাবি কট্টরপন্থীদের বিশ্বে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৫ লাখ ৮১ হাজারের বেশি বোরকা পরে নৌকায় চড়ে ভারত পালাচ্ছিলেন সাহেদ রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান সাহেদ অস্ত্রসহ গ্রেফতার
সর্বশেষ:
ঈদের জামাত নিয়ে ১৩ দফা নির্দেশনা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সকে কোটি টাকা জরিমানা সৌদির পাকিস্তানে বন্দুকধারীদের হামলা, ৮ সেনা নিহত

শাহজাদপুরে পূর্ব বিরোধের জেরে দু‘পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ২

ফারুক হাসান কাহার, শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ)

প্রকাশিত: ২৭ মে ২০২০  

পঠিত: ৩০৬
ছবি- প্রতিদিনের চিত্র

ছবি- প্রতিদিনের চিত্র


আধিপত্য বিস্তার ও পূর্ববিরোধের জের ধরে মঙ্গলবার বিকেলে সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার কৈজুরি ইউনিয়নের গুদিবাড়ি গ্রামে বাহারাম ব্যাপারী গ্রুপ ও সামসাদ প্রামাণিক গ্রুপের মধ্যে এক ভয়াবহ রক্তক্ষয়ী হামলা সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ২ জন নিহত ও ১৫জন আহত হয়েছে।

নিহতরা হল, বাহারাম ব্যাপারী গ্রুপের আব্দুল মান্নান ব্যাপারীর ছেলে শ্যালো মেশিন মেকার রিপন ব্যাপারী(৩০) ও সামসাদ প্রামাণিক গ্রুপের আনসার আলীর ছেলে ১০ শ্রেণীর ছাত্র আশরাফুল ইসলাম(১৫)।  আহতদের উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নিহতদের লাশ পুলিশ উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

খবর পেয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে ঘটনাস্থলে পুলিশ ক্যাম্প স্থাপন করে ব্যাপক পুলিশ মতায়েন করা হয়েছে। এ ঘটনার পর গ্রেপ্তার এড়াতে পুরুষরা গ্রাম ছেড়ে পালিয়ে আত্নগোপন করায় গ্রামটি পুরুষ শুন্য হয়ে পড়েছে।

এ বিষয়ে নিহত রিপনের স্ত্রী মনিরা বেগম(২৫) জানান,পাশের লোহিন্দাকান্দি গ্রাম থেকে কাজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে সামসাদ গ্রুপের লোকজন তার স্বামী রিপনকে একা পেয়ে হাতুড়ি ও লোহার রড় দিয়ে বেধরক পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। তাকে জামিরতা বাজারে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়ার সময় তারা দ্বিতীয় দফা হামলা চালিয়ে তাকে ফালাবিদ্ধ করে। মূমুর্ষ অবস্থায় তাকে হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। এ সময় তাদের বাধা দিতে গেলে আমার ৪ বছরের শিশু ছেলে মনিরুল সহ ৭ জন আহত হয়। অন্য আহতরা হল,বাহারাম ব্যাপারী(৪৫),গাজী ব্যাপারী(৪০),হবিবর রহমান(৫০),রাজু (২২),সাহেব আলী ও দায়েন(৩৫)।

অপরদিকে সামসাদ প্রামাণিক গ্রুপের পল্লিচিকিৎসক নাজিম উদ্দিন জানান,একটি মেয়েলি ঘটনাকে কেন্দ্র করে দেড়মাস আগে উভয় পক্ষের মধ্যে হামলা সংঘর্ষ ঘটে। এর জের ধরে রমজান মাসের শুরুর দিকে দ্বিতীয় দফা সংঘর্ষ হয়। এ দিন বিকেলে তৃতীয় দফায় বাহারাম গ্রুপের লোকজন অতর্কিত আমাদের বাড়িঘরে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাট শুরু করে। এতে বাধা দিলে এ গ্রামের চাঁদু ও গোলামের বাড়ির সামনে উভয়পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও হামলা সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে আমাদের পক্ষের আশরাফুল সহ ৮জন আহত হয়। ফলাবিদ্ধ আশরাফুলকে হাসপাতালে নেওয়ার পর চিকিৎসারত অবস্থায় সে মারা যায়। আমি সহ অন্য আহতদের মধ্যে সামসাদ (৬০),আক্তার হোসেন (৪৫),ইউসুফ আলী (২০),আনসার আলী (৬০),আব্বাস আলী (৫৫) ও জাহিদুল (১৮) কে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে শাহজাদপুর থানার ওসি আতাউর রহমান বলেন,খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে উভয়পক্ষকে ছত্রভঙ্গ করে দিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। এ ছাড়া পরবর্তীতে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে ওই গ্রামে অস্থায়ী ভাবে পুলিশ ক্যাম্প স্থাপন করে সেখানে ব্যাপক পুলিশ মতায়েন করা হয়েছে। এ ঘটনায় বুধবার দুপুরে নিহত রিপনের স্ত্রী মনিরা বেগম বাদী হয়ে থানায় একটি এজাহার দাখিল করেছে। অপরদিকে আশরাফুল হত্যার ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

এই বিভাগের আরো খবর