ঢাকা, বুধবার   ১০ আগস্ট ২০২২,   শ্রাবণ ২৬ ১৪২৯

ব্রেকিং:
চট্টগ্রাম, গাজীপুর, কক্সবাজার, নারায়ানগঞ্জ, পাবনা, টাঙ্গাইল ও ময়মনসিংহ ব্যুরো / জেলা প্রতিনিধি`র জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের আবেদন পাঠানোর আহ্বান করা হচ্ছে। শিক্ষাগত যোগ্যতা- স্নাতক, অভিজ্ঞদের ক্ষেত্রে শিক্ষাগত যোগ্যতা শিথিল যোগ্য। দৈনিক প্রতিদিনের চিত্র পত্রিকার `প্রিন্ট এবং অনলাইন পোর্টাল`-এ প্রতিনিধি নিয়োগ পেতে অথবা `যেকোন বিষয়ে` আর্থিক লেনদেন না করার জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের এবং প্রতিনিধিদের অনুরোধ করা হল।
সর্বশেষ:
বিশ্বকাপের জন্য আকর্ষণীয় জার্সি উন্মোচন ব্রাজিলের চার বছর পর মালয়েশিয়ায় কর্মী পাঠানো শুরু আত্মঘাতী হামলায় পাকিস্তানের ৪ সেনা নিহত গাজায় অস্ত্রবিরতিতে জাতিসংঘের প্রশংসা আশুরার শোক মিছিলে নাইজেরিয়ার সেনাদের হামলা; বহু হতাহত ইসরাইলি দখলদারিত্ব শেষ না হওয়া পর্যন্ত আমাদের সংগ্রাম চলবে: হামাস ট্রাম্পের বাড়িতে এফবিআইয়ের অভিযান

আফগানিস্তানে ভূমিকম্পের পর তীব্র খাদ্যসংকট

সংবাদ বিশ্ব ডেস্ক

প্রকাশিত: ২৬ জুন ২০২২  

ছবি- সংগৃহীত।

ছবি- সংগৃহীত।

 
ফগানিস্তানের পূর্বাঞ্চলে ভয়াবহ ভূমিকম্পের পর দেখা দিয়েছে তীব্র খাদ্যসংকট। বিভিন্ন দেশ এরই মধ্যে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিলেও তা প্রয়োজনের তুলনায় অনেক কম বলছে কর্তৃপক্ষ। সংকট সমাধানে আফগানিস্তানের ওপর থেকে সব ধরনের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছে তালেবান সরকার। খবর আল-জাজিরা।

 

ভূমিকম্পের পর আফগানিস্তানের পূর্বাঞ্চল পরিণত হয়েছে ধ্বংসস্তূপে। ভয়াবহ ভূমিকম্পের পর ধ্বংসের নগরীতে পরিণত হয়েছে খোস্ত প্রদেশ।

 

গত কয়েক দিনে ধ্বংসস্তূপ সরিয়ে নতুন করে জীবন গড়ার লড়াই করছেন ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার মানুষ। তবে, সমস্যা দেখা দিয়েছে পাহাড়ি অঞ্চলগুলোতে। নেই বিদ্যুৎ, পানি ও খাবার। এখনো অনেক জায়গায় পৌঁছায়নি সহায়তাও।

 

স্থানীয় এক বাসিন্দা বলেন, আমার পরিবারের চারজন মারা গেছে। আহত হয়েছে আরও দুজন। আমাদের থাকার কোনো জায়গা নেই। খাবার নেই। সবাই অনেক কষ্টে আছে।

 

এরই মধ্যে বিভিন্ন দেশ থেকে সহায়তা আসতে শুরু করেছে দেশটিতে। অনেক দেশও নতুন করে আফগানিস্তানে সহায়তা পাঠানোর ঘোষণা দিয়েছে। ক্ষতিগ্রস্তুদের তালিকা করার কাজ করছে স্থানীয় প্রশাসন।

 

ভূমিকম্প বিধ্বস্ত আফগানিস্তানে ৭৫ লাখ মার্কিন ডলার মূল্যের ত্রাণ পাঠাবে চীন। শনিবার (২৫ জুন) চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে এ ঘোষণা করা হয়। মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে বলা হয়, মানবিক ত্রাণের মধ্যে তাঁবু, তোয়ালে, বিছানা ও নিত্যপ্রয়োজনীয় অন্যান্য সমাগ্রী থাকবে।

 

গত বছর আগাস্টে অভ্যুত্থানের মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্র সমর্থিত সরকারকে উৎখাত করে কাবুল দখল করে তালেবান। তালেবান ক্ষমতায় আসার পর দেশটিতে ত্রাণ কার্যক্রম ও বরাদ্দ প্রায় বন্ধ হয়ে যায়।

 

এদিকে, ভয়াবহ এই দুর্যোগ মোকাবিলায় আন্তর্জাতিক বিশ্বের কাছে আরও ত্রাণসহায়তা চেয়েছে তালেবান সরকার। একই সঙ্গে, দেশটির ওপর আরোপিত সব নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের আহ্বান জানানো হয়েছে।

 

তালেবান সরকারের একজন মুখপাত্র বলেন, ২০ বছর পর এমন ভয়াবহ পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়েছি আমরা। সবার কাছেই সাহায্য, সহায়তা চাচ্ছি। একই সঙ্গে আমাদের নায্য অধিকার দাবি করছি। আমাদের সম্পদের ওপর থেকে এখনই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হোক।

 

দেশটির পূর্বাঞ্চলে গত সপ্তাহের ৬ দশমিক এক মাত্রার ভূমিকম্পে এখন পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে সাড়ে ১১ শতাধিক। আহত হয়েছেন অন্তত ২ হাজার। ধ্বংস হয়ে গেছে ১০ হাজার ঘরবাড়ি।

 

এই বিভাগের আরো খবর