ঢাকা, বুধবার   ১০ আগস্ট ২০২২,   শ্রাবণ ২৬ ১৪২৯

ব্রেকিং:
চট্টগ্রাম, গাজীপুর, কক্সবাজার, নারায়ানগঞ্জ, পাবনা, টাঙ্গাইল ও ময়মনসিংহ ব্যুরো / জেলা প্রতিনিধি`র জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের আবেদন পাঠানোর আহ্বান করা হচ্ছে। শিক্ষাগত যোগ্যতা- স্নাতক, অভিজ্ঞদের ক্ষেত্রে শিক্ষাগত যোগ্যতা শিথিল যোগ্য। দৈনিক প্রতিদিনের চিত্র পত্রিকার `প্রিন্ট এবং অনলাইন পোর্টাল`-এ প্রতিনিধি নিয়োগ পেতে অথবা `যেকোন বিষয়ে` আর্থিক লেনদেন না করার জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের এবং প্রতিনিধিদের অনুরোধ করা হল।
সর্বশেষ:
বিশ্বকাপের জন্য আকর্ষণীয় জার্সি উন্মোচন ব্রাজিলের চার বছর পর মালয়েশিয়ায় কর্মী পাঠানো শুরু আত্মঘাতী হামলায় পাকিস্তানের ৪ সেনা নিহত গাজায় অস্ত্রবিরতিতে জাতিসংঘের প্রশংসা আশুরার শোক মিছিলে নাইজেরিয়ার সেনাদের হামলা; বহু হতাহত ইসরাইলি দখলদারিত্ব শেষ না হওয়া পর্যন্ত আমাদের সংগ্রাম চলবে: হামাস ট্রাম্পের বাড়িতে এফবিআইয়ের অভিযান

নাসিরনগরে বন্যায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি, খাবার পানি ও জ্বালানির তীব্র সঙ্কটে মানুষ

সুজিত কুমার চক্রবর্তী, নাসিরনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া)

প্রকাশিত: ২৫ জুন ২০২২  

ছবি- প্রতিদিনেরচিত্র বিডি।

ছবি- প্রতিদিনেরচিত্র বিডি।

 

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলায় ভয়াবহ রূপ নিয়েছে বন্যা পরিস্থিতি। বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে হাজার হাজার আউশ/ আমন ধান, পাট, শাক  সবজি ফসলী জমি। অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।৷ অনেক ইউনিয়ন  উপজেলার সাথে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। ভেঙ্গে গেছে ব্রীজ ও অনেক কাঁচাবাড়িঘর।

 

বিভিন্ন ইউনিয়নের প্রায় কয়েক হাজার মানুষ গত পাঁচ দিন থেকে ভয়াবহ বন্যার পানিতে ভাসছে। বসতঘরে পানি থাকায় চুলায় আগুন জ্বালানোর মতো পরিস্থিতি নেই। ইউনিয়ন আশ্রয় কেন্দ্রেগুলোতে প্রশাসনের উদ্যোগ ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হচ্ছে।

 

বন্যায় তলিয়ে গেছে ১৩টি ইউনিয়নে বোনা আমন ১০০৭৫ হেক্টর, আউশ ২৯০০ হেক্টর, পাট ১৫০০ হেক্টর ও শাক সবজি ৪৭৫ হেক্টর জমি, বহু পাকা রাস্তাঘাট, প্লাবিত হয়েছে

 

ঘরবাড়ি,২৫ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে, ২৫০০ পুকুর ও শতাধিক মৎস্য ও পল্টি খামার। বন্যার পানির স্রোতে গোকর্ণ বেড়িবাঁধে কুকুরিয়া ব্রীজ, বুড়িশ্বর ইউনিয়ন চানপাড়া ব্রীজ, ভলাকুট ইউনিয়ন খাগালিয়া ব্রীজ ভেঙ্গে গেছে। যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।   প্রবল বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলের কারণে মেঘনা, ধলেশ্বরী, লংগনসহ বিভিন্ন নদ নদীর পানিবৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। পানিবন্দি হয়ে পড়েছে প্রায় কয়েক হাজার মানুষ। বসত ভিটা বানের পানির নিচে। প্রাণ বাঁচাতে মানুষজন ঠাঁই নিয়েছে আশ্রয় কেন্দ্র। চারদিকে পানি আর পানি। মানুষের মতো দুর্ভোগে পড়েছে গবাদি পশু। বন্যাকবলিতরা অন্তহীন দুর্ভোগে চরম অসহায়। কিছুদিন পূর্বে শিলা বৃষ্টিতে বোরা ধানে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। এই দূর্যোগ খাটতে না খাটতেই আবার  কৃষকদের স্বপ্ন সব কেড়ে নিয়েছে আকস্মিক বন্যা। সহায় সম্বল হারিয়ে এখন তারা নিঃস্ব।

 

স্থানীয়রা বলছে, অবিরাম বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নের গ্রামের মানুষ পানিবন্দি অবস্থায় সীমাহীন দুর্ভোগের মধ্যে চলছে।

 

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মোঃ মোনাববর হোসেন প্রতিনিধিকে জানান, বন্যা মোকাবেলায় সব প্রস্তুতি রাখা হয়েছে, ত্রাণ সামগ্রী পৌঁছে দেয়া হচ্ছে। নাসিরনগরে ক্ষতিগ্রস্থ একটি মানুষ ও আমাদের সেবা থেকে বঞ্চিত হবে না।

এই বিভাগের আরো খবর